লালমনিরহাটে জুয়েল হত্যায় গ্রেফতার আরও ১
jugantor
লালমনিরহাটে জুয়েল হত্যায় গ্রেফতার আরও ১

  লালমনিরহাট প্রতিনিধি  

০৭ নভেম্বর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

লালমনিরহাটের বুড়িমারীতে ‘কোরআন অবমাননার’ গুজব ছড়িয়ে আবু ইউনুস মোহাম্মদ শহীদুন্নবী জুয়েলকে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় আরও একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ নিয়ে তিন মামলায় মসজিদের খাদেমসহ মোট ২৪ জনকে গ্রেফতার করা হল। তবে জুয়েলকে প্রথম আঘাতকারী স্থানীয় ডেকোরেটর ব্যবসায়ী আবুল হোসেনকে এখনও গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

বৃহস্পতিবার আসামি রাজুকে (৩৮) গ্রেফতার করা হয়। তিনি লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার ভোটমারীর মুশরত মদাতি গ্রামের বাসিন্দা। শুক্রবার দুপুরে তাকে লালমনিরহাট আদালতে সোপর্দ করে পুলিশ।

এদিকে জুয়েল হত্যার ঘটনায় পুলিশের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে দু’দফায় মোট ৯ জন আসামির ৩ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। এরমধ্যে বৃহস্পতিবার ৫ আসামির রিমান্ড শেষ হয়েছে। তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। মসজিদের খাদেম জোবেদ আলীসহ বাকি ৪ আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

২৯ অক্টোবর সন্ধ্যায় বুড়িমারীতে ‘কোরআন অবমাননার’ গুজব ছড়িয়ে রংপুর শালবন এলাকার বাসিন্দা জুয়েলকে পিটিয়ে ও পুড়িয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় তার চাচাতো ভাই সাইফুল আলম, পাটগ্রাম থানার এসআই শাহজাহান আলী ও বুড়িমারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু সাঈদ নেওয়াজ নিশাত বাদী হয়ে তিনটি মামলা করেছেন।

লালমনিরহাটে জুয়েল হত্যায় গ্রেফতার আরও ১

 লালমনিরহাট প্রতিনিধি 
০৭ নভেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

লালমনিরহাটের বুড়িমারীতে ‘কোরআন অবমাননার’ গুজব ছড়িয়ে আবু ইউনুস মোহাম্মদ শহীদুন্নবী জুয়েলকে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় আরও একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ নিয়ে তিন মামলায় মসজিদের খাদেমসহ মোট ২৪ জনকে গ্রেফতার করা হল। তবে জুয়েলকে প্রথম আঘাতকারী স্থানীয় ডেকোরেটর ব্যবসায়ী আবুল হোসেনকে এখনও গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

বৃহস্পতিবার আসামি রাজুকে (৩৮) গ্রেফতার করা হয়। তিনি লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার ভোটমারীর মুশরত মদাতি গ্রামের বাসিন্দা। শুক্রবার দুপুরে তাকে লালমনিরহাট আদালতে সোপর্দ করে পুলিশ।

এদিকে জুয়েল হত্যার ঘটনায় পুলিশের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে দু’দফায় মোট ৯ জন আসামির ৩ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। এরমধ্যে বৃহস্পতিবার ৫ আসামির রিমান্ড শেষ হয়েছে। তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। মসজিদের খাদেম জোবেদ আলীসহ বাকি ৪ আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

২৯ অক্টোবর সন্ধ্যায় বুড়িমারীতে ‘কোরআন অবমাননার’ গুজব ছড়িয়ে রংপুর শালবন এলাকার বাসিন্দা জুয়েলকে পিটিয়ে ও পুড়িয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় তার চাচাতো ভাই সাইফুল আলম, পাটগ্রাম থানার এসআই শাহজাহান আলী ও বুড়িমারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু সাঈদ নেওয়াজ নিশাত বাদী হয়ে তিনটি মামলা করেছেন।