বরগুনায় স্কুলছাত্রী ধর্ষণে যুবকের যাবজ্জীবন
jugantor
বরগুনায় স্কুলছাত্রী ধর্ষণে যুবকের যাবজ্জীবন

  যুগান্তর রিপোর্ট, বরগুনা  

১৯ নভেম্বর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

দশম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রী ধর্ষণের মামলায় এক যুবককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। একইসঙ্গে দুই লাখ টাকা অর্থদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন বরগুনার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল। এ অর্থ ৩০ দিনের মধ্যে আসামির কাছ থেকে আদায় করে ওই স্কুলছাত্রী ও তার গর্ভজাত সন্তানকে দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল। বিচারক মো. হাফিজুর রহমান বুধবার দুপুরে এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি বরগুনা সদর উপজেলার আমতলী গ্রামের আমিন উদ্দিনের ছেলে আবদুল মালেক (৩৬)। রায় ঘোষণার সময় সে আদালতে উপস্থিত ছিল।

জানা যায়, ওই স্কুলছাত্রী ট্রাইব্যুনালে ২০০৯ সালের ২১ অক্টোবর ধর্ষক মালেকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে। এতে উল্লেখ করা হয়, ২০০৯ সালের ৩০ জুন রাতে মালেক তাকে বিয়ের কথা বলে ধর্ষণ করে। বাধা দিলে সে তাকে খুন করার ভয় দেখায়। তাই সে ধর্ষণের কথা কাউকে বলেনি। এরপর সে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে বিষয়টি তার মাকে জানায়। পরে মালেক তাকে বিয়ে করতে রাজি না হলে সে ট্রাইব্যুনালে মামলা করে।

বরগুনায় স্কুলছাত্রী ধর্ষণে যুবকের যাবজ্জীবন

 যুগান্তর রিপোর্ট, বরগুনা 
১৯ নভেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

দশম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রী ধর্ষণের মামলায় এক যুবককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। একইসঙ্গে দুই লাখ টাকা অর্থদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন বরগুনার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল। এ অর্থ ৩০ দিনের মধ্যে আসামির কাছ থেকে আদায় করে ওই স্কুলছাত্রী ও তার গর্ভজাত সন্তানকে দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল। বিচারক মো. হাফিজুর রহমান বুধবার দুপুরে এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি বরগুনা সদর উপজেলার আমতলী গ্রামের আমিন উদ্দিনের ছেলে আবদুল মালেক (৩৬)। রায় ঘোষণার সময় সে আদালতে উপস্থিত ছিল।

জানা যায়, ওই স্কুলছাত্রী ট্রাইব্যুনালে ২০০৯ সালের ২১ অক্টোবর ধর্ষক মালেকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে। এতে উল্লেখ করা হয়, ২০০৯ সালের ৩০ জুন রাতে মালেক তাকে বিয়ের কথা বলে ধর্ষণ করে। বাধা দিলে সে তাকে খুন করার ভয় দেখায়। তাই সে ধর্ষণের কথা কাউকে বলেনি। এরপর সে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে বিষয়টি তার মাকে জানায়। পরে মালেক তাকে বিয়ে করতে রাজি না হলে সে ট্রাইব্যুনালে মামলা করে।