চৌমুহনীতে নৌকার কর্মী খুনে গ্রেফতার ১ রিমান্ডের আবেদন
jugantor
চৌমুহনীতে নৌকার কর্মী খুনে গ্রেফতার ১ রিমান্ডের আবেদন

  নোয়াখালী প্রতিনিধি  

২২ জানুয়ারি ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

চৌমুহনী পৌরসভার নাজিরপুরে বুধবার সন্ধ্যায় নির্বাচনি প্রচারে গেলে সন্ত্রাসীদের ছুরিকাঘাতে নিহত মাজারুল ইসলাম তূর্জয়ের (২০) বাবা তাজুল ইসলাম মানিক বেগমগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা করেছেন। মামলায় অজ্ঞাতপরিচয় ১৫-২০ জনকে আসামি করা হয়। পুলিশ তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে এজাহারভুক্ত আসামি রবিউল ইসলাম রায়হানকে গ্রেফতার করেছে। তাকে নোয়াখালী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে বৃহস্পতিবার চালান করে ৭ দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে।

এদিকে জেলা পুলিশ সুপারের নির্দেশে মামলা রেকর্ডের পর মামলাটি নোয়াখালী পুলিশের গোয়েন্দা শাখায় (ডিবি) হস্তান্তর করা হয়েছে। নোয়াখালী ডিবির পরিদর্শক সাইফুল ইসলাম জানান, আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান শুরু হয়েছে।

তূর্জয়ের লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরির পর ময়নাতদন্তে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। খুনের ঘটনায় এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। ময়নাতদন্তের পর লাশ এলাকায় গেলে যেন কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটতে না পারে, সেজন্য এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

চৌমুহনীতে নৌকার কর্মী খুনে গ্রেফতার ১ রিমান্ডের আবেদন

 নোয়াখালী প্রতিনিধি 
২২ জানুয়ারি ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

চৌমুহনী পৌরসভার নাজিরপুরে বুধবার সন্ধ্যায় নির্বাচনি প্রচারে গেলে সন্ত্রাসীদের ছুরিকাঘাতে নিহত মাজারুল ইসলাম তূর্জয়ের (২০) বাবা তাজুল ইসলাম মানিক বেগমগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা করেছেন। মামলায় অজ্ঞাতপরিচয় ১৫-২০ জনকে আসামি করা হয়। পুলিশ তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে এজাহারভুক্ত আসামি রবিউল ইসলাম রায়হানকে গ্রেফতার করেছে। তাকে নোয়াখালী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে বৃহস্পতিবার চালান করে ৭ দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে।

এদিকে জেলা পুলিশ সুপারের নির্দেশে মামলা রেকর্ডের পর মামলাটি নোয়াখালী পুলিশের গোয়েন্দা শাখায় (ডিবি) হস্তান্তর করা হয়েছে। নোয়াখালী ডিবির পরিদর্শক সাইফুল ইসলাম জানান, আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান শুরু হয়েছে।

তূর্জয়ের লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরির পর ময়নাতদন্তে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। খুনের ঘটনায় এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। ময়নাতদন্তের পর লাশ এলাকায় গেলে যেন কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটতে না পারে, সেজন্য এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।