পার্বতীপুরে কৃষি শ্রমিককে কুপিয়ে হত্যা
jugantor
পার্বতীপুরে কৃষি শ্রমিককে কুপিয়ে হত্যা

  দিনাজপুর ও পার্বতীপুর প্রতিনিধি  

২২ জানুয়ারি ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলার কৃষি শ্রমিক হেলাল সরকারকে গলা কেটে হত্যার পর জিহ্বা কেটে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বৃহস্পতিবার ভোরে পার্বতীপুর-ফুলবাড়ি মহাসড়কের পাশে পলাশবাড়ী ইউনিয়নের এরশাদনগরে বন বিভাগের বাগানে এ ঘটনা ঘটে। সকালে পুলিশ লাশ উদ্ধারের পর ময়নাতদন্তের জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। হেলাল উপজেলার দরগাপাড়ার সাহান সরকারের ছেলে। এ ঘটনায় তাৎক্ষণিকভাবে প্রতিবেশী আবুল কালাম ও আবদুল কাদেরকে আটক করেছে পুলিশ।

পারিবারিক সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার ভোরে বাড়ি থেকে বের হন হেলাল। সকালে স্থানীয়রা তার লাশ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেন।

হেলালের ছেলে রবিউল ইসলাম ও মেয়ে গুলশান আরা জানান, সকালে শীতের পোশাক কেনার জন্য সৈয়দপুরে যাওয়ার কথা ছিল তাদের। বুধবার রাতে বাবা সবাইকে তাড়াতাড়ি ঘুম থেকে ওঠার কথা বলেছিলেন। কিন্তু তার আগেই তাকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে।

দিনাজপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম) মমিনুল ইসলাম ও পার্বতীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোখলেছুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। ওসি জানান, হেলালের গলাসহ শরীরে বিভিন্ন স্থানে অস্ত্রের আঘাত রয়েছে।

পার্বতীপুরে কৃষি শ্রমিককে কুপিয়ে হত্যা

 দিনাজপুর ও পার্বতীপুর প্রতিনিধি 
২২ জানুয়ারি ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলার কৃষি শ্রমিক হেলাল সরকারকে গলা কেটে হত্যার পর জিহ্বা কেটে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বৃহস্পতিবার ভোরে পার্বতীপুর-ফুলবাড়ি মহাসড়কের পাশে পলাশবাড়ী ইউনিয়নের এরশাদনগরে বন বিভাগের বাগানে এ ঘটনা ঘটে। সকালে পুলিশ লাশ উদ্ধারের পর ময়নাতদন্তের জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। হেলাল উপজেলার দরগাপাড়ার সাহান সরকারের ছেলে। এ ঘটনায় তাৎক্ষণিকভাবে প্রতিবেশী আবুল কালাম ও আবদুল কাদেরকে আটক করেছে পুলিশ।

পারিবারিক সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার ভোরে বাড়ি থেকে বের হন হেলাল। সকালে স্থানীয়রা তার লাশ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেন।

হেলালের ছেলে রবিউল ইসলাম ও মেয়ে গুলশান আরা জানান, সকালে শীতের পোশাক কেনার জন্য সৈয়দপুরে যাওয়ার কথা ছিল তাদের। বুধবার রাতে বাবা সবাইকে তাড়াতাড়ি ঘুম থেকে ওঠার কথা বলেছিলেন। কিন্তু তার আগেই তাকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে।

দিনাজপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম) মমিনুল ইসলাম ও পার্বতীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোখলেছুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। ওসি জানান, হেলালের গলাসহ শরীরে বিভিন্ন স্থানে অস্ত্রের আঘাত রয়েছে।