সাঁথিয়ায় জুয়া খেলাকে কেন্দ্র করে যুবককে হত্যা
jugantor
সাঁথিয়ায় জুয়া খেলাকে কেন্দ্র করে যুবককে হত্যা

  সাঁথিয়া (পাবনা) প্রতিনিধি  

১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

পাবনার সাঁথিয়ায় জুয়া খেলাকে কেন্দ্র করে এক যুবক খুন হয়েছে। তার নাম নাজমুল। বন্ধু শাকিল ও তার সহযোগীরা মোবাইল ফোনে ডেকে নিয়ে লোহার রড দিয়ে খুঁচিয়ে, অণ্ডকোষে আঘাত করে তাকে হত্যা করে। ঘটনাটি ঘটেছে সাঁথিয়া পৌরসভার শশদিয়া গ্রামের কাটিয়াদহ বিলে পিঁয়াজের ক্ষেতে।

এ ঘটনায় পুলিশ শাকিলকে আটক করেছে। তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী মঙ্গলবার সন্ধ্যায় লাশ উদ্ধার করা হয়। নাজমুল পৌরসভার শশদিয়া গ্রামের আব্দুল মজিদের ছেলে। নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, শাকিল ও নাজমুল একে অপরের বন্ধু। সোমবার রাত ৯টায় মোবাইল ফোনে নাজমুলকে পরিচিত এক ব্যক্তি ডেকে নেয়। এরপর নাজমুল বাড়ি এসে ২৮ হাজার টাকা নিয়ে আবার বের হয়ে আর ফিরে আসেনি। সাঁথিয়া থানার ওসি আসিফ মোহাম্মদ সিদিকুল ইসলাম জানান, মঙ্গলবার দুপুরে জনৈক ব্যক্তি এসে নাজমুলের নিখোঁজের খবর দেন। পুলিশ পাঠিয়ে বিষয়টির খোঁজখবর চলমান থাকে। এ সময় পার্শ্ববর্তী জঙ্গলে লুকিয়ে থাকা শাকিলকে সন্দেহ হলে আটক করা হয়। এ ব্যাপারে মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

সাঁথিয়ায় জুয়া খেলাকে কেন্দ্র করে যুবককে হত্যা

 সাঁথিয়া (পাবনা) প্রতিনিধি 
১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

পাবনার সাঁথিয়ায় জুয়া খেলাকে কেন্দ্র করে এক যুবক খুন হয়েছে। তার নাম নাজমুল। বন্ধু শাকিল ও তার সহযোগীরা মোবাইল ফোনে ডেকে নিয়ে লোহার রড দিয়ে খুঁচিয়ে, অণ্ডকোষে আঘাত করে তাকে হত্যা করে। ঘটনাটি ঘটেছে সাঁথিয়া পৌরসভার শশদিয়া গ্রামের কাটিয়াদহ বিলে পিঁয়াজের ক্ষেতে।

এ ঘটনায় পুলিশ শাকিলকে আটক করেছে। তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী মঙ্গলবার সন্ধ্যায় লাশ উদ্ধার করা হয়। নাজমুল পৌরসভার শশদিয়া গ্রামের আব্দুল মজিদের ছেলে। নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, শাকিল ও নাজমুল একে অপরের বন্ধু। সোমবার রাত ৯টায় মোবাইল ফোনে নাজমুলকে পরিচিত এক ব্যক্তি ডেকে নেয়। এরপর নাজমুল বাড়ি এসে ২৮ হাজার টাকা নিয়ে আবার বের হয়ে আর ফিরে আসেনি। সাঁথিয়া থানার ওসি আসিফ মোহাম্মদ সিদিকুল ইসলাম জানান, মঙ্গলবার দুপুরে জনৈক ব্যক্তি এসে নাজমুলের নিখোঁজের খবর দেন। পুলিশ পাঠিয়ে বিষয়টির খোঁজখবর চলমান থাকে। এ সময় পার্শ্ববর্তী জঙ্গলে লুকিয়ে থাকা শাকিলকে সন্দেহ হলে আটক করা হয়। এ ব্যাপারে মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন