দালালদের দৌরাত্ম্যে রোগীরা অতিষ্ঠ চিকিৎসাসেবা ব্যাহত
jugantor
ধামরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স
দালালদের দৌরাত্ম্যে রোগীরা অতিষ্ঠ চিকিৎসাসেবা ব্যাহত

  ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি  

০৬ মার্চ ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ঢাকার ধামরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বিভিন্ন ওষুধ কোম্পানির বিক্রয় প্রতিনিধি (এসআর), বেসরকারি হাসপাতাল ও ক্লিনিক অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক স্ট্রোরের দালালদের দৌরাত্ম্যে রোগীরা অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। এতে ব্যাহত হচ্ছে চিকিৎসাসেবা।

ভুক্তভোগীরা জানান, ধামরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অভ্যন্তরে বিক্রয় প্রতিনিধি, বেসরকারি হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিকের দালালদের খপ্পরে পরে যায় রোগীরা। ডাক্তার যে ওষুধই লিখুক না কেন ওই ওষুধ কোম্পানির বিক্রয় প্রতিনিধিরা তাদের নিজ নিজ কোম্পানির ওষুধ কেনাতে বাধ্য করতে প্রতিযোগিতায় মেতে উঠে। ডাক্তারদের বিভিন্ন উপঢৌকন ও ফ্রি স্যাম্পল প্রদানের মাধ্যমে রোগীর চিকিৎসাপত্রে নিজ নিজ ওষুধ কোম্পানির প্রোডাক্ট লেখাতে এবং বাইরের হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক স্ট্রোরে রোগীদের পাঠাতে বাধ্য করে থাকে এ সিন্ডিকেট। মরিয়ম আক্তার নামে এক রোগী বলেন, ডাক্তারের চেম্বার হতে বের হওয়া মাত্রই হাত থেকে ব্যবস্থাপত্র কেড়ে নিয়ে মোবাইল ফোনের ক্যামেরাবন্দি করে। তারা দেখতে চায় ডাক্তার তাদের কোম্পানির ওষুধ লিখে কিনা। আবার বাইরের হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্ট্রারের দালালরা পাগল হয়ে তাদের প্রতিষ্ঠানে নেয়ার জন্য। এতে তাদের হাতে রোগী ও স্বজনদের নাজেহাল হতে হয়। ধামরাই উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা (ইউএসও) ডা. নুর রিফফাত আরা বলেন, খুব শিগগিরই এ বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। বিষয়টি দীর্ঘদিনের পুরনো। সহসাই বন্ধ করা সম্ভব নয়। সমস্যা নিরসনে ধীরে ধীরে ব্যবস্থা নিতে হবে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

ধামরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

দালালদের দৌরাত্ম্যে রোগীরা অতিষ্ঠ চিকিৎসাসেবা ব্যাহত

 ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি 
০৬ মার্চ ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ঢাকার ধামরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বিভিন্ন ওষুধ কোম্পানির বিক্রয় প্রতিনিধি (এসআর), বেসরকারি হাসপাতাল ও ক্লিনিক অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক স্ট্রোরের দালালদের দৌরাত্ম্যে রোগীরা অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। এতে ব্যাহত হচ্ছে চিকিৎসাসেবা।

ভুক্তভোগীরা জানান, ধামরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অভ্যন্তরে বিক্রয় প্রতিনিধি, বেসরকারি হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিকের দালালদের খপ্পরে পরে যায় রোগীরা। ডাক্তার যে ওষুধই লিখুক না কেন ওই ওষুধ কোম্পানির বিক্রয় প্রতিনিধিরা তাদের নিজ নিজ কোম্পানির ওষুধ কেনাতে বাধ্য করতে প্রতিযোগিতায় মেতে উঠে। ডাক্তারদের বিভিন্ন উপঢৌকন ও ফ্রি স্যাম্পল প্রদানের মাধ্যমে রোগীর চিকিৎসাপত্রে নিজ নিজ ওষুধ কোম্পানির প্রোডাক্ট লেখাতে এবং বাইরের হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক স্ট্রোরে রোগীদের পাঠাতে বাধ্য করে থাকে এ সিন্ডিকেট। মরিয়ম আক্তার নামে এক রোগী বলেন, ডাক্তারের চেম্বার হতে বের হওয়া মাত্রই হাত থেকে ব্যবস্থাপত্র কেড়ে নিয়ে মোবাইল ফোনের ক্যামেরাবন্দি করে। তারা দেখতে চায় ডাক্তার তাদের কোম্পানির ওষুধ লিখে কিনা। আবার বাইরের হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্ট্রারের দালালরা পাগল হয়ে তাদের প্রতিষ্ঠানে নেয়ার জন্য। এতে তাদের হাতে রোগী ও স্বজনদের নাজেহাল হতে হয়। ধামরাই উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা (ইউএসও) ডা. নুর রিফফাত আরা বলেন, খুব শিগগিরই এ বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। বিষয়টি দীর্ঘদিনের পুরনো। সহসাই বন্ধ করা সম্ভব নয়। সমস্যা নিরসনে ধীরে ধীরে ব্যবস্থা নিতে হবে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন