দুই চেয়ারম্যানের দ্বন্দ্বে সরাইলে যুবক নিহত
jugantor
দুই চেয়ারম্যানের দ্বন্দ্বে সরাইলে যুবক নিহত

  যুগান্তর প্রতিবেদন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া  

০৯ এপ্রিল ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে বর্তমান ও সাবেক চেয়ারম্যানের দ্বন্দ্বে হামলায় দেলোয়ার হোসেন (২৪) নামের এক যুবক নিহত হয়েছে। বুধবার রাতে উপজেলার পাকশিমুল ইউনিয়নের দক্ষিণপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত দেলোয়ার ওই এলাকার প্রবাসী আব্দুল হান্নান মিয়ার ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পাকশিমুল ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সাইফুল ইসলাম এবং একই ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান কাশেম আলীর মধ্যে বিরোধ চলে আসছে। বুধবার দুপুরে বর্তমান চেয়ারম্যানের পক্ষের ছায়েদুল হকের সঙ্গে সাবেক চেয়ারম্যানের ছেলে মোজাম্মেল মিয়ার কথা কাটাকাটি ও হাতাহাতি হয়। সন্ধ্যায় স্থানীয় বাজারে চেয়ারম্যান সাইফুলের লোকজন সাবেক চেয়ারম্যান কাশেম আলীর লোকজনকে লাঞ্ছিত করার চেষ্টা করে। এনিয়ে উভয়পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি হয়। এর জেরে বর্তমান চেয়ারম্যানের লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সাবেক চেয়ারম্যানের লোকজনের বাড়িতে হামলা করে। এসময় দুপক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এরইমধ্যে দেলোয়ার হোসেনকে ছুরিকাঘাত করে গুরুতর আহত করা হয়। তাকে উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে রাতেই ঢাকায় নেওয়ার পথে সে মারা যায়।

রাতে দেলোয়ারের মৃত্যুর খবর এলাকায় পৌঁছলে প্রতিপক্ষের ঘরবাড়িতে ভাংচুর চালানো হয়। এ সময় ফের দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। পরে রাত ১২টার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পুলিশ ৪ জনকে আটক করেছে।

সরাইল সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান বলেন, লাশ উদ্ধার করে বৃহ¯পতিবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এখনো মামলা হয়নি। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা আছে।

দুই চেয়ারম্যানের দ্বন্দ্বে সরাইলে যুবক নিহত

 যুগান্তর প্রতিবেদন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া 
০৯ এপ্রিল ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে বর্তমান ও সাবেক চেয়ারম্যানের দ্বন্দ্বে হামলায় দেলোয়ার হোসেন (২৪) নামের এক যুবক নিহত হয়েছে। বুধবার রাতে উপজেলার পাকশিমুল ইউনিয়নের দক্ষিণপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত দেলোয়ার ওই এলাকার প্রবাসী আব্দুল হান্নান মিয়ার ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পাকশিমুল ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সাইফুল ইসলাম এবং একই ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান কাশেম আলীর মধ্যে বিরোধ চলে আসছে। বুধবার দুপুরে বর্তমান চেয়ারম্যানের পক্ষের ছায়েদুল হকের সঙ্গে সাবেক চেয়ারম্যানের ছেলে মোজাম্মেল মিয়ার কথা কাটাকাটি ও হাতাহাতি হয়। সন্ধ্যায় স্থানীয় বাজারে চেয়ারম্যান সাইফুলের লোকজন সাবেক চেয়ারম্যান কাশেম আলীর লোকজনকে লাঞ্ছিত করার চেষ্টা করে। এনিয়ে উভয়পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি হয়। এর জেরে বর্তমান চেয়ারম্যানের লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সাবেক চেয়ারম্যানের লোকজনের বাড়িতে হামলা করে। এসময় দুপক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এরইমধ্যে দেলোয়ার হোসেনকে ছুরিকাঘাত করে গুরুতর আহত করা হয়। তাকে উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে রাতেই ঢাকায় নেওয়ার পথে সে মারা যায়।

রাতে দেলোয়ারের মৃত্যুর খবর এলাকায় পৌঁছলে প্রতিপক্ষের ঘরবাড়িতে ভাংচুর চালানো হয়। এ সময় ফের দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। পরে রাত ১২টার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পুলিশ ৪ জনকে আটক করেছে।

সরাইল সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান বলেন, লাশ উদ্ধার করে বৃহ¯পতিবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এখনো মামলা হয়নি। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা আছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন