সাদা পোশাকে তুলে নিয়ে যাওয়া ছেলেকে ফেরত চাইলেন মা
jugantor
সিলেট প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন
সাদা পোশাকে তুলে নিয়ে যাওয়া ছেলেকে ফেরত চাইলেন মা

  সিলেট ব্যুরো  

০৫ মে ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জে সাদা পোশাকে তুলে নিয়ে যাওয়া কলেজ পড়ুয়া ছেলেকে ফেরত চেয়েছেন তার মা। ওই ছাত্রের নাম সজীব ইখতিয়ার। ২৮ এপ্রিল এ ঘটনা ঘটলেও এখন পর্যন্ত তার কোনো সন্ধান মেলেনি। সিলেট প্রেস ক্লাবে মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে একথা জানান সজীবের মা সিলেট নগরের টিলাগড় রাজপাড়ার বাসিন্দা মোছা. নাদিরা বেগম। লিখিত বক্তব্যে তিনি তার ছেলেকে ফিরে পেতে সংশ্লিষ্টদের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। নাদিরা বেগম বলেন, ছেলেকে নিয়ে জামালগঞ্জ উপজেলার আছানপুরে তার বাবার বাড়িতে বেড়াতে গিয়েছিলেন তিনি। সেখানে অবস্থানকালে সাদা পোশাকে ১০-১২ সশস্ত্র লোক তাকে তুলে নিয়ে যায়। ওই দলের সঙ্গে জামালগঞ্জ থানার এসআই সোহাগ ও এসআই রফিকুল ছিলেন বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান। তিনি বলেন, এ ঘটনার পর থানায় ওই দুই পুলিশ কর্মকর্তার সঙ্গে যোগাযোগ করলেও তারা কোনো তথ্য দিতে পারেননি। এ ব্যাপারে সাধারণ ডায়েরি করতে চাইলে জামালগঞ্জ থানার ওসি তা গ্রহণ করেননি। জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে গিয়ে তার ছেলের কোনো তথ্য না পেয়ে পুলিশ সুপার ও সিলেট রেঞ্জ ডিআইজির হস্তক্ষেপ কামনা করে আবেদন করেন। তিনি আরও উল্লেখ করেন, সজীব সুনামগঞ্জ ডিগ্রি কলেজের শিক্ষার্থী। তার বিরুদ্ধে কোনো দেশবিরোধী ও সমাজবিরোধী অভিযোগ বা মামলা নেই। এরপরও তাকে তুলে নিয়ে ৬ দিন গুম করে রাখা হয়েছে। এক প্রশ্নের জবাবে নাদিরা বেগম বলেন, জামালগঞ্জ থানা পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তারা বলেন, ঢাকা থেকে টিম এসে সজীবকে নিয়ে গেছে। তাদের কিছু করার নেই।

সিলেট প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন

সাদা পোশাকে তুলে নিয়ে যাওয়া ছেলেকে ফেরত চাইলেন মা

 সিলেট ব্যুরো 
০৫ মে ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জে সাদা পোশাকে তুলে নিয়ে যাওয়া কলেজ পড়ুয়া ছেলেকে ফেরত চেয়েছেন তার মা। ওই ছাত্রের নাম সজীব ইখতিয়ার। ২৮ এপ্রিল এ ঘটনা ঘটলেও এখন পর্যন্ত তার কোনো সন্ধান মেলেনি। সিলেট প্রেস ক্লাবে মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে একথা জানান সজীবের মা সিলেট নগরের টিলাগড় রাজপাড়ার বাসিন্দা মোছা. নাদিরা বেগম। লিখিত বক্তব্যে তিনি তার ছেলেকে ফিরে পেতে সংশ্লিষ্টদের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। নাদিরা বেগম বলেন, ছেলেকে নিয়ে জামালগঞ্জ উপজেলার আছানপুরে তার বাবার বাড়িতে বেড়াতে গিয়েছিলেন তিনি। সেখানে অবস্থানকালে সাদা পোশাকে ১০-১২ সশস্ত্র লোক তাকে তুলে নিয়ে যায়। ওই দলের সঙ্গে জামালগঞ্জ থানার এসআই সোহাগ ও এসআই রফিকুল ছিলেন বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান। তিনি বলেন, এ ঘটনার পর থানায় ওই দুই পুলিশ কর্মকর্তার সঙ্গে যোগাযোগ করলেও তারা কোনো তথ্য দিতে পারেননি। এ ব্যাপারে সাধারণ ডায়েরি করতে চাইলে জামালগঞ্জ থানার ওসি তা গ্রহণ করেননি। জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে গিয়ে তার ছেলের কোনো তথ্য না পেয়ে পুলিশ সুপার ও সিলেট রেঞ্জ ডিআইজির হস্তক্ষেপ কামনা করে আবেদন করেন। তিনি আরও উল্লেখ করেন, সজীব সুনামগঞ্জ ডিগ্রি কলেজের শিক্ষার্থী। তার বিরুদ্ধে কোনো দেশবিরোধী ও সমাজবিরোধী অভিযোগ বা মামলা নেই। এরপরও তাকে তুলে নিয়ে ৬ দিন গুম করে রাখা হয়েছে। এক প্রশ্নের জবাবে নাদিরা বেগম বলেন, জামালগঞ্জ থানা পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তারা বলেন, ঢাকা থেকে টিম এসে সজীবকে নিয়ে গেছে। তাদের কিছু করার নেই।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন