ফেনীতে সিজারের সময় মাথা কেটে নবজাতকের মৃত্যু
jugantor
ফেনীতে সিজারের সময় মাথা কেটে নবজাতকের মৃত্যু

  ফেনী প্রতিনিধি  

১৭ মে ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ফেনীর ডায়াবেটিক হাসপাতালে ভুল সিজারে মাথার খুলি কাটায় এক নবজাতকের মৃত্যু হয়েছে। রোববার বেলা সাড়ে ১১টায় এ ঘটনা ঘটে। ফেনী মডেল থানার ওসি (তদন্ত) ওমর হায়দার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন। পুলিশ ও ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার সূত্রে জানা যায়, রোববার সকালে কুমিল্লা জেলার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার দক্ষিণ শ্রীপুর গ্রামের মো. বিপ্লবের স্ত্রী নাজমা আক্তার বিথীর প্রসব বেদনা দেখা দেয়। তাকে ফেনীর ডায়াবেটিক হাসপাতালে নেওয়া হয়। হাসপাতালে কোনো ডাক্তার না থাকলেও হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ভর্তি করে নার্স রূপা চৌধুরীর নেতৃত্বে অপারেশন রুমে নেওয়া হয়। সিজারের সময় ছুরির আঘাতে নবজাতকের মাথার খুলি কেটে যায়। এতে শিশুটির মৃত্যু হয়।

পরিবারের লোকজন বুঝে ওঠার আগেই রূপা চৌধুরী ও তার সহকারী পালিয়ে যায়।

ফেনী মডেল থানার ওসি বলেন, শিশুটির সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে। লিখিত অভিযোগের ওপর মামলা গ্রহণ করা হবে।

এদিকে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, নরমাল ডেলিভারি সময় বাচ্চার মাথা আটকে যায়। এতে মা ও বাচ্চাকে বাঁচানো কঠিন হয়ে পড়ে। ডাক্তার-নার্সদের চেষ্টায় নরমাল ডেলিভারি করা গেলেও ছেলে নবজাতককে বাঁচানো সম্ভব হয়নি। স্বার্থান্বেষীমহল বিষয়টি নিয়ে হাসপাতালের সুনাম ক্ষুণ্নের অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে।

ফেনীতে সিজারের সময় মাথা কেটে নবজাতকের মৃত্যু

 ফেনী প্রতিনিধি 
১৭ মে ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ফেনীর ডায়াবেটিক হাসপাতালে ভুল সিজারে মাথার খুলি কাটায় এক নবজাতকের মৃত্যু হয়েছে। রোববার বেলা সাড়ে ১১টায় এ ঘটনা ঘটে। ফেনী মডেল থানার ওসি (তদন্ত) ওমর হায়দার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন। পুলিশ ও ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার সূত্রে জানা যায়, রোববার সকালে কুমিল্লা জেলার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার দক্ষিণ শ্রীপুর গ্রামের মো. বিপ্লবের স্ত্রী নাজমা আক্তার বিথীর প্রসব বেদনা দেখা দেয়। তাকে ফেনীর ডায়াবেটিক হাসপাতালে নেওয়া হয়। হাসপাতালে কোনো ডাক্তার না থাকলেও হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ভর্তি করে নার্স রূপা চৌধুরীর নেতৃত্বে অপারেশন রুমে নেওয়া হয়। সিজারের সময় ছুরির আঘাতে নবজাতকের মাথার খুলি কেটে যায়। এতে শিশুটির মৃত্যু হয়।

পরিবারের লোকজন বুঝে ওঠার আগেই রূপা চৌধুরী ও তার সহকারী পালিয়ে যায়।

ফেনী মডেল থানার ওসি বলেন, শিশুটির সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে। লিখিত অভিযোগের ওপর মামলা গ্রহণ করা হবে।

এদিকে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, নরমাল ডেলিভারি সময় বাচ্চার মাথা আটকে যায়। এতে মা ও বাচ্চাকে বাঁচানো কঠিন হয়ে পড়ে। ডাক্তার-নার্সদের চেষ্টায় নরমাল ডেলিভারি করা গেলেও ছেলে নবজাতককে বাঁচানো সম্ভব হয়নি। স্বার্থান্বেষীমহল বিষয়টি নিয়ে হাসপাতালের সুনাম ক্ষুণ্নের অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন