অবৈধভাবে সীমান্ত দিয়ে আসা সাত রোহিঙ্গা আটক
jugantor
অবৈধভাবে সীমান্ত দিয়ে আসা সাত রোহিঙ্গা আটক

  টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি  

২৫ মে ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

কক্সবাজারের টেকনাফ সীমান্ত দিয়ে অবৈধভাবে আসা সাত রোহিঙ্গাকে আটক করেছে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন)। নয়াপাড়া রেজিস্ট্রার ক্যাম্প সংলগ্ন টিডিএস হাসপাতালের পাশ থেকে রোববার রাতে তাদের আটক করা হয়।

১৬ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন অধিনায়ক পুলিশ সুপার তারিকুল ইসলাম জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে রোহিঙ্গারা জানিয়েছে, তারা মিয়ানমারে বিভিন্ন মেয়াদে কারাভোগ করে দালালদের মাধ্যমে চুক্তিবদ্ধ হয়ে অবৈধভাবে সীমান্ত পাড়ি দিয়ে উখিয়া-টেকনাফের বিভিন্ন রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অবস্থানরত তাদের পরিবারের সঙ্গে থাকার জন্য এসেছে। আটক রোহিঙ্গারা হলো, ফজল করিমের ছেলে আজিজুল হক, হাবিবের ছেলে শাহ্ আলম, মুসা আলীর ছেলে হোসেন আহমেদ, লোকমান হাকিমের ছেলে নুর সালাম, ফয়েজ আহমেদের ছেলে আবুল হোসেন, বসির আহমেদের ছেলে মুদ্দাছার ও রশিদের ছেলে সালমান।

অবৈধভাবে আসা সাত রোহিঙ্গাকে আটকের বিষয়টি শরণার্থী, ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশন (আরআরআরসি) কার্যালয়ে জানানো হয়েছে। কমিশনের নির্দেশনানুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন এপিবিএন কর্মকর্তা।

অবৈধভাবে সীমান্ত দিয়ে আসা সাত রোহিঙ্গা আটক

 টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি 
২৫ মে ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

কক্সবাজারের টেকনাফ সীমান্ত দিয়ে অবৈধভাবে আসা সাত রোহিঙ্গাকে আটক করেছে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন)। নয়াপাড়া রেজিস্ট্রার ক্যাম্প সংলগ্ন টিডিএস হাসপাতালের পাশ থেকে রোববার রাতে তাদের আটক করা হয়।

১৬ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন অধিনায়ক পুলিশ সুপার তারিকুল ইসলাম জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে রোহিঙ্গারা জানিয়েছে, তারা মিয়ানমারে বিভিন্ন মেয়াদে কারাভোগ করে দালালদের মাধ্যমে চুক্তিবদ্ধ হয়ে অবৈধভাবে সীমান্ত পাড়ি দিয়ে উখিয়া-টেকনাফের বিভিন্ন রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অবস্থানরত তাদের পরিবারের সঙ্গে থাকার জন্য এসেছে। আটক রোহিঙ্গারা হলো, ফজল করিমের ছেলে আজিজুল হক, হাবিবের ছেলে শাহ্ আলম, মুসা আলীর ছেলে হোসেন আহমেদ, লোকমান হাকিমের ছেলে নুর সালাম, ফয়েজ আহমেদের ছেলে আবুল হোসেন, বসির আহমেদের ছেলে মুদ্দাছার ও রশিদের ছেলে সালমান।

অবৈধভাবে আসা সাত রোহিঙ্গাকে আটকের বিষয়টি শরণার্থী, ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশন (আরআরআরসি) কার্যালয়ে জানানো হয়েছে। কমিশনের নির্দেশনানুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন এপিবিএন কর্মকর্তা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন