পিডিবির সাবেক প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা
jugantor
৯৪ লাখ টাকার সম্পদের তথ্য গোপন
পিডিবির সাবেক প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

  চট্টগ্রাম ব্যুরো  

১৪ জুন ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

৯৪ লাখ ২৮ হাজার ১৭২ টাকার সম্পদের তথ্য গোপনের অভিযোগে চট্টগ্রাম বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের সাবেক তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী এসএমএ আজিম (৫৬) ও তার স্ত্রী নবতারা নূপুর (৪৭)-এর বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) ঢাকা প্রধান কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মো. হাফিজুল ইসলাম বাদী হয়ে রোববার ঢাকা দুদক কার্যালয়ে মামলাটি করেন।

মামলার এজাহারে বলা হয়, এসএমএ আজিমের স্ত্রী নবতারা নূপুর ২০১৮ সালের ৫ নভেম্বর দুদক কার্যালয়ে সম্পদ বিবরণী দাখিল করেন। ওই বিবরণীতে তিনি তিন কোটি ১৭ লাখ ১৪ হাজার ২৫০ টাকা মূল্যের স্থাবর ও ৪৮ লাখ ৩৭ হাজার ৬৫৬ টাকা মূল্যের অস্থাবর সম্পদের তথ্য দেন। পরবর্তীতে দুদকের অনুসন্ধানে নবতারা নূপুরের নামে তিন কোটি ৯৯ লাখ ৩৯ হাজার ৭৩৪ টাকা মূল্যের স্থাবর সম্পদ ও ৭৫ লাখ ৭৪ হাজার ১০৮ টাকা মূল্যের অস্থাবর সম্পদ থাকার তথ্য মেলে। এর মধ্যে রয়েছে নবতারা নূপুরের ৩৭ নম্বর ওয়ার্ডের উত্তর-মধ্যম হালিশহর ক্রয় করা জমির ওপর ৬ তলা ভবন। যার মূল্য ৬৫ লাখ ৬৬ হাজার ৭৪৩ টাকা ও আসবাবপত্র বাবদ ৫০ হাজার ১৫০ টাকা, ইলেকট্রনিক্স সামগ্রী বাবদ ১২ লাখ ৩১ হাজার ৬২৭ টাকা, ডাচ্-বাংলা ব্যাংক হালিশহর শাখায় ১৫ লাখ ৭৯ হাজার ৩০৭ টাকা এবং আইএফআইসি ব্যাংক আগ্রাবাদ শাখায় জমানো টাকাসহ ২৮ লাখ ৬১ হাজার ৪২৯ টাকা মূল্যের অস্থাবর সম্পদ এবং ৬৫ লাখ ৬৬ হাজার ৭৪৩ টাকার স্থাবর সম্পদসহ ৯৪ লাখ ২৮ হাজার ১৭২ টাকার তথ্য গোপন করেন।

দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) ঢাকা প্রধান কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মো. হাফিজুল ইসলাম যুগান্তরকে বলেন, সম্পদের তথ্য গোপনের অভিযোগে চট্টগ্রাম বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের সাবেক তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী এসএমএ আজিম ও তার স্ত্রী নবতারা নূপুরের বিরুদ্ধে তিনি মামলা দায়ের করেছেন।

৯৪ লাখ টাকার সম্পদের তথ্য গোপন

পিডিবির সাবেক প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

 চট্টগ্রাম ব্যুরো 
১৪ জুন ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

৯৪ লাখ ২৮ হাজার ১৭২ টাকার সম্পদের তথ্য গোপনের অভিযোগে চট্টগ্রাম বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের সাবেক তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী এসএমএ আজিম (৫৬) ও তার স্ত্রী নবতারা নূপুর (৪৭)-এর বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) ঢাকা প্রধান কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মো. হাফিজুল ইসলাম বাদী হয়ে রোববার ঢাকা দুদক কার্যালয়ে মামলাটি করেন।

মামলার এজাহারে বলা হয়, এসএমএ আজিমের স্ত্রী নবতারা নূপুর ২০১৮ সালের ৫ নভেম্বর দুদক কার্যালয়ে সম্পদ বিবরণী দাখিল করেন। ওই বিবরণীতে তিনি তিন কোটি ১৭ লাখ ১৪ হাজার ২৫০ টাকা মূল্যের স্থাবর ও ৪৮ লাখ ৩৭ হাজার ৬৫৬ টাকা মূল্যের অস্থাবর সম্পদের তথ্য দেন। পরবর্তীতে দুদকের অনুসন্ধানে নবতারা নূপুরের নামে তিন কোটি ৯৯ লাখ ৩৯ হাজার ৭৩৪ টাকা মূল্যের স্থাবর সম্পদ ও ৭৫ লাখ ৭৪ হাজার ১০৮ টাকা মূল্যের অস্থাবর সম্পদ থাকার তথ্য মেলে। এর মধ্যে রয়েছে নবতারা নূপুরের ৩৭ নম্বর ওয়ার্ডের উত্তর-মধ্যম হালিশহর ক্রয় করা জমির ওপর ৬ তলা ভবন। যার মূল্য ৬৫ লাখ ৬৬ হাজার ৭৪৩ টাকা ও আসবাবপত্র বাবদ ৫০ হাজার ১৫০ টাকা, ইলেকট্রনিক্স সামগ্রী বাবদ ১২ লাখ ৩১ হাজার ৬২৭ টাকা, ডাচ্-বাংলা ব্যাংক হালিশহর শাখায় ১৫ লাখ ৭৯ হাজার ৩০৭ টাকা এবং আইএফআইসি ব্যাংক আগ্রাবাদ শাখায় জমানো টাকাসহ ২৮ লাখ ৬১ হাজার ৪২৯ টাকা মূল্যের অস্থাবর সম্পদ এবং ৬৫ লাখ ৬৬ হাজার ৭৪৩ টাকার স্থাবর সম্পদসহ ৯৪ লাখ ২৮ হাজার ১৭২ টাকার তথ্য গোপন করেন।

দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) ঢাকা প্রধান কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মো. হাফিজুল ইসলাম যুগান্তরকে বলেন, সম্পদের তথ্য গোপনের অভিযোগে চট্টগ্রাম বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের সাবেক তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী এসএমএ আজিম ও তার স্ত্রী নবতারা নূপুরের বিরুদ্ধে তিনি মামলা দায়ের করেছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন