ভাতিজার ছুরিকাঘাতে বীর মুক্তিযোদ্ধা নিহত
jugantor
আহত মেয়ে আইসিইউতে
ভাতিজার ছুরিকাঘাতে বীর মুক্তিযোদ্ধা নিহত

  কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি  

১৭ জুলাই ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

কেরানীগঞ্জের পশ্চিম রোহিতপুরে আপন ভাতিজার ছুরিকাঘাতে মোজাফফর আলী (৭০) নামে একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা নিহত হয়েছেন। এ সময় বাবাকে বাঁচাতে এগিয়ে আসা তার বড় মেয়ে মৌ (২০) ছুরিকাঘাতে আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মোজাফফর হোসেনের নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। মৌয়ের অবস্থা সংকটাপন্ন। তাকে মিটফোর্ড হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। ঘটনার পর পালিয়ে গেছে ভাতিজা ঠান্ডু মিয়া।

নিহতের ছোট মেয়ে মিতা নূর জানান, তার চাচাতো ভাই ঠান্ডু মিয়া মাদকাসক্ত। থাকেন রাজধানীর মিরপুরে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ঠান্ডু তাদের বাড়িতে আসেন। বাবার কাছে ৫০০ টাকা চাইলে বাবা তাকে ৩০০ টাকা দেন। ২০০ টাকা না দেওয়ায় সে বাবার সঙ্গে ঝগড়া শুরু করে দেয়। এক পর্যায়ে বাবাকে ছুরিকাঘাত করে। এ সময় বড় মেয়ে মৌ বাবাকে বাঁচাতে এলে ঠান্ডু মিয়া তাকেও ছুরিকাঘাত করে। স্থানীয়দের সহযোগিতায় বাবা এবং বোনকে হাসপাতালে নেওয়ার পথেই বাবা মারা যান। বোনের অবস্থাও ভালো না। মোজাফফর হোসেন রোহিতপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে একাধিকবার চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করায় তিনি এলাকার পরিচিত মুখ।

তার মৃত্যুর সংবাদ ছড়িয়ে পড়লে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। বিভিন্ন এলাকা থেকে আগত বীর মুক্তিযোদ্ধারা তার বাড়িতে ভিড় জমান। কেরানীগঞ্জ মডেল থানার ওসি আব্দুস ছালাম বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোজাফফর হোসেন খুনের ঘটনায় তার স্ত্রী নার্গিস বেগম বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা করেছেন। ঘাতককে ধরতে পুলিশের একাধিক টিম কাজ করছে।

আহত মেয়ে আইসিইউতে

ভাতিজার ছুরিকাঘাতে বীর মুক্তিযোদ্ধা নিহত

 কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি 
১৭ জুলাই ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

কেরানীগঞ্জের পশ্চিম রোহিতপুরে আপন ভাতিজার ছুরিকাঘাতে মোজাফফর আলী (৭০) নামে একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা নিহত হয়েছেন। এ সময় বাবাকে বাঁচাতে এগিয়ে আসা তার বড় মেয়ে মৌ (২০) ছুরিকাঘাতে আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মোজাফফর হোসেনের নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। মৌয়ের অবস্থা সংকটাপন্ন। তাকে মিটফোর্ড হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। ঘটনার পর পালিয়ে গেছে ভাতিজা ঠান্ডু মিয়া।

নিহতের ছোট মেয়ে মিতা নূর জানান, তার চাচাতো ভাই ঠান্ডু মিয়া মাদকাসক্ত। থাকেন রাজধানীর মিরপুরে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ঠান্ডু তাদের বাড়িতে আসেন। বাবার কাছে ৫০০ টাকা চাইলে বাবা তাকে ৩০০ টাকা দেন। ২০০ টাকা না দেওয়ায় সে বাবার সঙ্গে ঝগড়া শুরু করে দেয়। এক পর্যায়ে বাবাকে ছুরিকাঘাত করে। এ সময় বড় মেয়ে মৌ বাবাকে বাঁচাতে এলে ঠান্ডু মিয়া তাকেও ছুরিকাঘাত করে। স্থানীয়দের সহযোগিতায় বাবা এবং বোনকে হাসপাতালে নেওয়ার পথেই বাবা মারা যান। বোনের অবস্থাও ভালো না। মোজাফফর হোসেন রোহিতপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে একাধিকবার চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করায় তিনি এলাকার পরিচিত মুখ।

তার মৃত্যুর সংবাদ ছড়িয়ে পড়লে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। বিভিন্ন এলাকা থেকে আগত বীর মুক্তিযোদ্ধারা তার বাড়িতে ভিড় জমান। কেরানীগঞ্জ মডেল থানার ওসি আব্দুস ছালাম বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোজাফফর হোসেন খুনের ঘটনায় তার স্ত্রী নার্গিস বেগম বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা করেছেন। ঘাতককে ধরতে পুলিশের একাধিক টিম কাজ করছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন