চেয়ারম্যানসহ ৩৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা, গ্রেফতার ৩
jugantor
বেতাগীতে যুবলীগ নেতাকে পিটিয়ে হত্যা
চেয়ারম্যানসহ ৩৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা, গ্রেফতার ৩

  বেতাগী (বরগুনা) প্রতিনিধি  

২৪ জুলাই ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বরগুনার বেতাগীতে যুবলীগ নেতা ও সাবেক ইউপি সদস্যকে প্রকাশ্যে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় ওই ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যানসহ ৩৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে বেতাগী থানা পুলিশ। শুক্রবার সকালে মৃত যুবলীগ নেতার স্ত্রী বাদী হয়ে এ মামলা করেন। এতে ওই ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যানের ছোট ভাই টিটু জোমাদ্দারকে প্রধান আসামি করে বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান ইমাম হাসান শিপনসহ ৩৮ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করা হয়।

এ ঘটনায় ৩ জনকে গ্রেফতার করেছে বেতাগী থানা পুলিশ। তবে মামলার তদন্তের স্বার্থে গ্রেফতার ৩ জনের নাম প্রকাশ করেনি বেতাগী থানা পুলিশ। এদিকে হত্যা মামলায় উপস্থিত ব্যক্তির চেয়ে অনুপস্থিতিতে থাকা একাধিক লোককে আসামি করায় ক্ষোভ জানান তাদের পরিবার।

তারা বলেন, যাদের আসামি করা হয়েছে তারা অনেকেই কয়েক মাস ধরে এলাকায় ছিলেন না। ১৯ জুলাই সোমবার রাজনৈতিক সহিংসতার জেরে উপজেলার সরিষামুড়ি ইউনিয়ন যুবলীগের বর্তমান সাধারণ সম্পাদক ও ওই ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য মো. আনোয়ারুল হক টিটুকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। ওইদিন দুপুরে বেতাগী থানা পুলিশ ছোট গৌরিচন্না এলাকার রাস্তার পাশ থেকে তার মৃতদেহ উদ্ধার করেন।

বেতাগী থানার ওসি কাজী সাখাওয়াত হোসেন তপু বলেন, ‘মামলা রুজুর পরপরই ৩ জন আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। তবে এ মামলার তদন্ত করবেন বরগুনা ডিবির ইন্সপেক্টর ফয়সাল আহম্মেদ।’ বরগুনার ডিবির ওসি আবিদুর রহমান বলেন, ‘আমাদের তদন্তকারী দল ইতোমধ্যে কাজ করা শুরু করেছে। দ্রুত ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার করা হবে।’

বেতাগীতে যুবলীগ নেতাকে পিটিয়ে হত্যা

চেয়ারম্যানসহ ৩৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা, গ্রেফতার ৩

 বেতাগী (বরগুনা) প্রতিনিধি 
২৪ জুলাই ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বরগুনার বেতাগীতে যুবলীগ নেতা ও সাবেক ইউপি সদস্যকে প্রকাশ্যে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় ওই ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যানসহ ৩৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে বেতাগী থানা পুলিশ। শুক্রবার সকালে মৃত যুবলীগ নেতার স্ত্রী বাদী হয়ে এ মামলা করেন। এতে ওই ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যানের ছোট ভাই টিটু জোমাদ্দারকে প্রধান আসামি করে বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান ইমাম হাসান শিপনসহ ৩৮ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করা হয়।

এ ঘটনায় ৩ জনকে গ্রেফতার করেছে বেতাগী থানা পুলিশ। তবে মামলার তদন্তের স্বার্থে গ্রেফতার ৩ জনের নাম প্রকাশ করেনি বেতাগী থানা পুলিশ। এদিকে হত্যা মামলায় উপস্থিত ব্যক্তির চেয়ে অনুপস্থিতিতে থাকা একাধিক লোককে আসামি করায় ক্ষোভ জানান তাদের পরিবার।

তারা বলেন, যাদের আসামি করা হয়েছে তারা অনেকেই কয়েক মাস ধরে এলাকায় ছিলেন না। ১৯ জুলাই সোমবার রাজনৈতিক সহিংসতার জেরে উপজেলার সরিষামুড়ি ইউনিয়ন যুবলীগের বর্তমান সাধারণ সম্পাদক ও ওই ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য মো. আনোয়ারুল হক টিটুকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। ওইদিন দুপুরে বেতাগী থানা পুলিশ ছোট গৌরিচন্না এলাকার রাস্তার পাশ থেকে তার মৃতদেহ উদ্ধার করেন।

বেতাগী থানার ওসি কাজী সাখাওয়াত হোসেন তপু বলেন, ‘মামলা রুজুর পরপরই ৩ জন আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। তবে এ মামলার তদন্ত করবেন বরগুনা ডিবির ইন্সপেক্টর ফয়সাল আহম্মেদ।’ বরগুনার ডিবির ওসি আবিদুর রহমান বলেন, ‘আমাদের তদন্তকারী দল ইতোমধ্যে কাজ করা শুরু করেছে। দ্রুত ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার করা হবে।’

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন