আবৃত্তি গানে কবি বেলাল চৌধুরীকে স্মরণ

  সাংস্কৃতিক রিপোর্টার ০৪ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

কবি বেলাল চৌধুরী না ফেরার দেশে চলে গেছেন কিছুদিন আগে। প্রিয় এ কবিকে এবার স্মরণ করা হল। বৃহস্পতিবার জাতীয় জাদুঘরের নলিনীকান্ত ভট্টশালী মিলনায়তনে জাতীয় কবিতা পরিষদ আয়োজন করেছিল বেলাল চৌধুরী স্মরণে কবিতাপাঠ, স্মৃতিচারণ, গান ও আবৃত্তি অনুষ্ঠান। যাতে যোগ দিয়েছিলেন ইমেরিটাস অধ্যাপক আনিসুজ্জামান, সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর, শিল্পী হাশেম খান, কবি মুহম্মদ নুরুল হুদা, বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক শামসুজ্জামান খান, নাট্যব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার, কবি হাবীবুল্লাহ সিরাজী, কবি শিহাব সরকার, কথাসাহিত্যিক আনোয়ারা সৈয়দ হক, কবি রুবী রহমান, কবি কামাল চৌধুরী, কবি আনিসুল হক, কবি আসাদ মান্নান, আলোকচিত্রী নাসির আলী মামুন, বেলাল চৌধুরীর ভ্রাতৃষ্পুত্র রফিক উম মুনীর চৌধুরী প্রমুখ। সভাপতিত্ব করেন জাতীয় কবিতা পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক মুহাম্মদ সামাদ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক তারিক সুজাত।

কবি বেলাল চৌধুরী স্মরণে এক মিনিট নিরবতা পালনের মধ্যদিয়ে শুরু হয় এ আয়োজন। পরে শিল্পী ইফ্্ফাত আরা দেওয়ান গেয়ে শোনান রবীন্দ্রনাথের দুটি গান ‘আগুনের পরশমনি ছোঁয়াও প্রাণে’ ও ‘মনে কী দ্বিধা রেখে গেলে চলে’। বাচিকশিল্পী ভাস্বর বন্দ্যোপাধ্যায় পাঠ করেন বেলাল চৌধুরীর কবিতা ‘মর্মে মর্মে স্বাধীনতা’। অনুষ্ঠানে স্বরচিত কবিতা পাঠ করেন আনোয়ারা সৈয়দ হক ও আনিসুল হক।

অধ্যাপক আনিসুজ্জামান বলেন, বেলাল চৌধুরী স্বভাবে লাজুক ছিলেন। নিজেকে প্রকাশ করতেন কম, মাঝে মাঝে কথা বলতেন, তখন তার তীক্ষè ধীরশক্তির প্রমাণ পাওয়া যেত। বেলালের মাঝে বরাবর এক ধরনের রোমান্টিকতা ছিল। কিন্তু সেটা যথাসম্ভব চেপে রেখে, আধুনিক মনস্কতার দিকে জোর দিয়েছিল। বেলাল আমাদের অনেকের চেয়ে বিশ্বসাহিত্য ঘনিষ্ঠভাবে পড়েছিল। নানা ভাষার যে অনুবাদ তা থেকে সে প্রমাণ মেলে। নোবেল প্রাইজ পাওয়ার আগে গ্যাব্রিয়েল গার্সিয়া মার্কেজের কথা আমরা বেলালের কাছে জেনেছি।

আসাদুজ্জামান নূর বলেন, কবি বেলাল চৌধুরী আমাদের কাছে বিশেষ করে শিল্প-সংস্কৃতি অঙ্গনের মানুষের কাছে ছিলেন ছায়ার মতো। আমরা বেলাল চৌধুরীর খুব অনুরক্ত ছিলাম। তিনি খুব সহজে মানুষকে আপন করে নিতে পারতেন। তিনি প্রায়ই আমাদের নাটকের মহড়ায় আসতেন, আড্ডা দিতেন। তিনি বেলাল চৌধুরীর একটি কবিতা পাঠ করেন।

কামাল চৌধুরী বলেন, কবিতায় বেলাল চৌধুরী স্বদেশের রৌদ্রছায়ায় মিশে থাকার আকাক্সক্ষা ব্যক্ত করেছেন। তিনি উন্মুল বাউন্ডুলে জীবনযাপন করেছেন। লেখালেখি ভ্রমণ সবকিছু মিলিয়ে চমকপ্রদ জীবন কাটিয়েছেন।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter