চলে গেলেন কবি মোস্তফা মীর

  সাংস্কৃতিক রিপোর্টার ০৪ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

চলে গেলেন কবি, ঔপন্যাসিক ও অনুবাদক মোস্তফা মীর (৬৬)। বুধবার রাতে রাজধানীর ধানমণ্ডিতে গণস্বাস্থ্য হাসপাতালে লাইফ সাপোর্ট খুলে তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়। তিনি স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়ে রেখে গেছেন।

মোস্তফা মীরের মামাতো ভাই শামীম খান জানান, তার দুটি কিডনিই নষ্ট হয়ে গিয়েছিল। সোমবার গণস্বাস্থ্য হাসপাতালে কিডনি ডায়ালাইসিস করার সময় গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন মোস্তফা মীর। ওই দিন বিকাল থেকেই তাকে হাসপাতালটির নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে (আইসিইউ) লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়। তিনি আরও জানান, বৃহস্পতিবার সকালে মোস্তফা মীরের মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় তার রায়েরবাজরের বাসভবনে। এর পর রায়েরবাজার প্রগতি সংঘ মসজিদে বাদ জোহর জানাজা শেষে রায়েরবাজার শহীদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে তার লাশ দাফন সম্পন্ন হয়।

কবি মোস্তফা মীর সত্তর দশকে বাংলা কবিতাকে যারা এদেশে জনপ্রিয় করে তোলেন তাদের মধ্যে অন্যতম। তিনি ১৯৫২ সালে রাজবাড়ী জেলার বড় লক্ষ্মীপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাংলা ভাষা ও সাহিত্যে তিনি মাস্টার্স করেছেন ১৯৭৬ সালে। প্রচারবিমুখ এ কবির কাব্যগ্রন্থের সংখ্যা পাঁচটি। তার আলোচিত বইয়ের মধ্যে রয়েছে ‘মিশরীয় পুরাণ’ ও ‘আদম ইতিহাসের প্রথম চরিত্র’। নব্বই দশকের শুরুতে এসে হঠাৎ করেই লেখেন উপন্যাস ‘দানববংশ’। তবে গদ্যচর্চার এ ধারাবাহিকতায় লেখেন আরও তিনটি উপন্যাস ‘ঈশ্বরের ঘ্রাণ’, ‘কুকুরকুঞ্জ’ ও ‘তোমাকে চাই’।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter