এবার গানে গানে সিআরবি রক্ষার আন্দোলন
jugantor
এবার গানে গানে সিআরবি রক্ষার আন্দোলন

  চট্টগ্রাম ব্যুরো  

১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

সিআরবিতে হাসপাতাল নির্মাণের প্রতিবাদে এবার গানে গানে আন্দোলন অব্যাহত রেখেছে চট্টগ্রাম নাগরিক সমাজ। চাকসুর সাবেক জিএস শহিদ মুক্তিযোদ্ধা আবদুর রবের কবর ও মুক্তিযোদ্ধাদের স্মৃতিচিহ্ন ধ্বংস করে হাসপাতাল নির্মাণের প্রতিবাদে দুই মাসেরও বেশি সময় ধরে চলছে এই আন্দোলন। বুধবার সিআরবি সাত রাস্তার মোড় এলাকায় সভা-সমাবেশ এবং প্রতিবাদী গান অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়া চট্টগ্রাম নগরীর ফুসফুস খ্যাত সিআরবির প্রাণ-প্রকৃতি বাঁচাতে ভিন্ন ভিন্ন সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করছে বিভিন্ন সংগঠন। এর আগে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সিআরবি সাত রাস্তার মোড়ের সাংস্কৃতিক প্ল্যাটফর্ম ‘যতদূর গলা যায়’ নামক প্রতিবাদী গানের আয়োজন করা হয়। সিআরবি রক্ষায় ‘কফিল আহমেদ এর গান’ শিরোনামে এই আয়োজন শুরু হয় ‘যতদূর গলা যায়’ এর গান দিয়ে। এরপর ইন্দ্রাণী ভট্টাচার্য সোমা, সত্যজিত ঘোষ, তারিন, সুমি, ওঙ্কার গান পরিবেশন করেন। গণসংগীত শিল্পী কফিল আহমেদ বলেন, এই সিআরবি আমাদের হৃদয়। এখানে কোনো হাসপাতাল হবে না। এখানে শুধু জন্মাবে গাছ। প্রকৃতি জাগবে। মানুষের জীবনবোধ জাগবে। তা দেখবে বাংলাদেশ, তা দেখবে বিশ্ববাসী। এই সিআরবি প্রকৃতির, জীবনের, মাটির, অনুভবের ও বিকাশের। এর প্রতি ভালোবাসা জানিয়ে গান করছি।

এবার গানে গানে সিআরবি রক্ষার আন্দোলন

 চট্টগ্রাম ব্যুরো 
১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

সিআরবিতে হাসপাতাল নির্মাণের প্রতিবাদে এবার গানে গানে আন্দোলন অব্যাহত রেখেছে চট্টগ্রাম নাগরিক সমাজ। চাকসুর সাবেক জিএস শহিদ মুক্তিযোদ্ধা আবদুর রবের কবর ও মুক্তিযোদ্ধাদের স্মৃতিচিহ্ন ধ্বংস করে হাসপাতাল নির্মাণের প্রতিবাদে দুই মাসেরও বেশি সময় ধরে চলছে এই আন্দোলন। বুধবার সিআরবি সাত রাস্তার মোড় এলাকায় সভা-সমাবেশ এবং প্রতিবাদী গান অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়া চট্টগ্রাম নগরীর ফুসফুস খ্যাত সিআরবির প্রাণ-প্রকৃতি বাঁচাতে ভিন্ন ভিন্ন সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করছে বিভিন্ন সংগঠন। এর আগে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সিআরবি সাত রাস্তার মোড়ের সাংস্কৃতিক প্ল্যাটফর্ম ‘যতদূর গলা যায়’ নামক প্রতিবাদী গানের আয়োজন করা হয়। সিআরবি রক্ষায় ‘কফিল আহমেদ এর গান’ শিরোনামে এই আয়োজন শুরু হয় ‘যতদূর গলা যায়’ এর গান দিয়ে। এরপর ইন্দ্রাণী ভট্টাচার্য সোমা, সত্যজিত ঘোষ, তারিন, সুমি, ওঙ্কার গান পরিবেশন করেন। গণসংগীত শিল্পী কফিল আহমেদ বলেন, এই সিআরবি আমাদের হৃদয়। এখানে কোনো হাসপাতাল হবে না। এখানে শুধু জন্মাবে গাছ। প্রকৃতি জাগবে। মানুষের জীবনবোধ জাগবে। তা দেখবে বাংলাদেশ, তা দেখবে বিশ্ববাসী। এই সিআরবি প্রকৃতির, জীবনের, মাটির, অনুভবের ও বিকাশের। এর প্রতি ভালোবাসা জানিয়ে গান করছি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন