কবিরহাটে জন্মনিবন্ধনের কার্যক্রম বন্ধ
jugantor
ইউএনও’র নিজ নিবন্ধনে ভুল
কবিরহাটে জন্মনিবন্ধনের কার্যক্রম বন্ধ

  কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি  

২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

‘উপজেলা নির্বাহী অফিসারের (ইউএনও) নিজ জন্মনিবন্ধনে ভুল থাকায় জন্ম নিবন্ধন সংক্রান্ত সব কার্যক্রম স্থগিত থাকবে। ওই সমস্যা সমাধান হলে পুনরায় কার্যক্রম শুরু করা হবে। আদেশক্রমে-কর্তৃপক্ষ।’ এমন একটি নোটিশ দেখা গেছে নোয়াখালীর কবিরহাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে। যা ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। তবে বিষয়টি স্বীকার করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হাসিনা আক্তার।

সোমবার সকালে তার কার্যালয়ের জন্মনিবন্ধন সংশোধনী কক্ষের সামনে গিয়ে এমন নোটিশ দেখতে পান বলে একাধিক ব্যক্তি অভিযোগ করেছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, পৌরসভার বাইরের লোকজনের জন্মনিবন্ধন সংক্রান্ত ভুলগুলো সংশোধন ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে করা হয়। ইউনিয়ন পরিষদ থেকে যে ফরমটি দেওয়া হয় তাতে উপজেলা কার্যালয় থেকে একটি স্বাক্ষরের প্রয়োজন হয়। সপ্তাহে প্রতি সোমবার উপজেলা কার্যালয় থেকে এ কাজটি করা হয়। কিন্তু ২৭ সেপ্টেম্বর সোমবার সকাল থেকে নিবন্ধনে নামসহ বিভিন্ন তথ্যের ভুল সংশোধনের জন্য একাধিক ব্যক্তি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে গিয়ে নিবন্ধন সংশোধনী কক্ষের সামনে একটি নোটিশ দেখতে পান। এ বিষয়ে অফিসে থাকা লোকজনের কাছে জানতে চাইলে তারা নোটিশে সব লেখা আছে বলে জানান। এর বাইরে আর কোনো কথা বলতে রাজি নন তারা। এমন পরিস্থিতিতে সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত নিবন্ধন সংশোধনে আগ্রহী অনেকেই আবেদন নিয়ে ফিরে গেছেন। এমন ঘটনাকে হয়রানি বলেও অভিযোগ করছেন অনেকে।

এ বিষয়ে জানতে কবিরহাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হাসিনা আক্তারের সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হয়। বিষয়টি স্বীকার করে তিনি বলেন, আমার নিজের জন্মনিবন্ধন সনদে ভুল রয়েছে, আমারটা সংশোধন হলে তারপর থেকে জন্মনিবন্ধন সংশোধনের ফরমগুলো জমা নেওয়া হবে।

নোয়াখালী জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ খোরশেদ আলম খান জানান, বিষয়টি তিনি জানেন না। তবে এ সম্পর্কে খবর নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ইউএনও’র নিজ নিবন্ধনে ভুল

কবিরহাটে জন্মনিবন্ধনের কার্যক্রম বন্ধ

 কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি 
২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

‘উপজেলা নির্বাহী অফিসারের (ইউএনও) নিজ জন্মনিবন্ধনে ভুল থাকায় জন্ম নিবন্ধন সংক্রান্ত সব কার্যক্রম স্থগিত থাকবে। ওই সমস্যা সমাধান হলে পুনরায় কার্যক্রম শুরু করা হবে। আদেশক্রমে-কর্তৃপক্ষ।’ এমন একটি নোটিশ দেখা গেছে নোয়াখালীর কবিরহাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে। যা ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। তবে বিষয়টি স্বীকার করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হাসিনা আক্তার।

সোমবার সকালে তার কার্যালয়ের জন্মনিবন্ধন সংশোধনী কক্ষের সামনে গিয়ে এমন নোটিশ দেখতে পান বলে একাধিক ব্যক্তি অভিযোগ করেছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, পৌরসভার বাইরের লোকজনের জন্মনিবন্ধন সংক্রান্ত ভুলগুলো সংশোধন ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে করা হয়। ইউনিয়ন পরিষদ থেকে যে ফরমটি দেওয়া হয় তাতে উপজেলা কার্যালয় থেকে একটি স্বাক্ষরের প্রয়োজন হয়। সপ্তাহে প্রতি সোমবার উপজেলা কার্যালয় থেকে এ কাজটি করা হয়। কিন্তু ২৭ সেপ্টেম্বর সোমবার সকাল থেকে নিবন্ধনে নামসহ বিভিন্ন তথ্যের ভুল সংশোধনের জন্য একাধিক ব্যক্তি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে গিয়ে নিবন্ধন সংশোধনী কক্ষের সামনে একটি নোটিশ দেখতে পান। এ বিষয়ে অফিসে থাকা লোকজনের কাছে জানতে চাইলে তারা নোটিশে সব লেখা আছে বলে জানান। এর বাইরে আর কোনো কথা বলতে রাজি নন তারা। এমন পরিস্থিতিতে সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত নিবন্ধন সংশোধনে আগ্রহী অনেকেই আবেদন নিয়ে ফিরে গেছেন। এমন ঘটনাকে হয়রানি বলেও অভিযোগ করছেন অনেকে।

এ বিষয়ে জানতে কবিরহাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হাসিনা আক্তারের সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হয়। বিষয়টি স্বীকার করে তিনি বলেন, আমার নিজের জন্মনিবন্ধন সনদে ভুল রয়েছে, আমারটা সংশোধন হলে তারপর থেকে জন্মনিবন্ধন সংশোধনের ফরমগুলো জমা নেওয়া হবে।

নোয়াখালী জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ খোরশেদ আলম খান জানান, বিষয়টি তিনি জানেন না। তবে এ সম্পর্কে খবর নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন