যৌন নির্যাতনের প্রতিবাদ করায় চরফ্যাশনে ছাত্রীকে মারধর
jugantor
যৌন নির্যাতনের প্রতিবাদ করায় চরফ্যাশনে ছাত্রীকে মারধর

  চরফ্যাশন দক্ষিণ (ভোলা) প্রতিনিধি  

১১ অক্টোবর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

চরফ্যাশনে যৌন নির্যাতনের প্রতিবাদ করায় স্কুলে ঢুকে ৪র্থ শ্রেণির শিশুশিক্ষার্থী রিয়া বেগমকে (১০) মারধরের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় যুবক ইকবাল হোসেনের বিরুদ্ধে। শশীভূষণ থানা এলাকার উত্তর আইচা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শনিবার এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পরপরই রিয়া বাড়ি গিয়ে বিষয়টি তার মাকে জানায়। প্রধান শিক্ষককে নালিশ জানাতে গেলে পথে রিয়ার মাকেও ইকবাল মারধর ও লাঞ্ছিত করে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন স্কুলের প্রধান শিক্ষক সুফিয়া বেগম। রিয়া জানায়, নাস্তা কেনার জন্য স্কুলসংলগ্ন দোকানে যাই। সেখানে ইকবাল আমাকে দেখে নানা অশ্লীল ভাষায় খারাপ মন্তব্য করে। আমি প্রতিবাদ করে তাকে পাগল বলে স্কুলে ফিরে যাই। কিছুক্ষণ পরে ক্ষুব্ধ ইকবাল স্কুল গিয়ে আমাকে ডেকে এনে এলোপাতাড়ি মারধর করে। সহকারী শিক্ষা অফিসার শফিকুল ইসলাম জানান, বিকালে ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক ও ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ঘটনাটি মোবাইল ফোনে আমাকে জানিয়েছেন। বিষয়টি তদন্ত করে ওই যুবকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অভিযুক্ত ইকবাল হোসেন মারধরের বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, আমার বিরুদ্ধে অহেতুক অভিযোগ তোলা হয়েছে।

যৌন নির্যাতনের প্রতিবাদ করায় চরফ্যাশনে ছাত্রীকে মারধর

 চরফ্যাশন দক্ষিণ (ভোলা) প্রতিনিধি 
১১ অক্টোবর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

চরফ্যাশনে যৌন নির্যাতনের প্রতিবাদ করায় স্কুলে ঢুকে ৪র্থ শ্রেণির শিশুশিক্ষার্থী রিয়া বেগমকে (১০) মারধরের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় যুবক ইকবাল হোসেনের বিরুদ্ধে। শশীভূষণ থানা এলাকার উত্তর আইচা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শনিবার এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পরপরই রিয়া বাড়ি গিয়ে বিষয়টি তার মাকে জানায়। প্রধান শিক্ষককে নালিশ জানাতে গেলে পথে রিয়ার মাকেও ইকবাল মারধর ও লাঞ্ছিত করে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন স্কুলের প্রধান শিক্ষক সুফিয়া বেগম। রিয়া জানায়, নাস্তা কেনার জন্য স্কুলসংলগ্ন দোকানে যাই। সেখানে ইকবাল আমাকে দেখে নানা অশ্লীল ভাষায় খারাপ মন্তব্য করে। আমি প্রতিবাদ করে তাকে পাগল বলে স্কুলে ফিরে যাই। কিছুক্ষণ পরে ক্ষুব্ধ ইকবাল স্কুল গিয়ে আমাকে ডেকে এনে এলোপাতাড়ি মারধর করে। সহকারী শিক্ষা অফিসার শফিকুল ইসলাম জানান, বিকালে ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক ও ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ঘটনাটি মোবাইল ফোনে আমাকে জানিয়েছেন। বিষয়টি তদন্ত করে ওই যুবকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অভিযুক্ত ইকবাল হোসেন মারধরের বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, আমার বিরুদ্ধে অহেতুক অভিযোগ তোলা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন