পৌর কাউন্সিলর ও যুবলীগ নেতা কারাগারে
jugantor
আসামি ছিনতাই
পৌর কাউন্সিলর ও যুবলীগ নেতা কারাগারে

  রাজশাহী ব্যুরো  

১৭ অক্টোবর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

মাদকের আসামি ছিনতাই ও সরকারি কাজে বাধাদানের মামলায় রাজশাহীর গোদাগাড়ী পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শহীদুল ইসলাম ও পৌরসভার কর্মচারী উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম কাউসার মাসুমকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। দণ্ডপ্রাপ্ত পাঁচ মাদকসেবী ছিনতাই মামলার দণ্ডিত আসামি। জানা যায়, মামলার সাজার মেয়াদ ছিল একমাস। কিন্তু ১৪ দিন সাজাভোগের পর তারা জামিন পান। তবে আদালতে নিয়মিত হাজিরা না দেওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয়। রোববার রাজশাহীর অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) সাবিহা সুলতানার আদালতে হাজির হলে তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ১৫ মার্চ সন্ধ্যায় পৌরসভার হলের মোড় এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৫ মাদকসেবীকে গ্রেফতার করে মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর। পরে তাদের গোদাগাড়ীর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার নাজমুন নাহারের আদালতে হাজির করা হয়। এ সময় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ৫ মাদকসেবীকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দিয়ে পুলিশে দেন। এদিকে তাদের ছাড়িয়ে নিতে ওয়ার্ড কাউন্সিলর শহীদুল ইসলাম ও যুবলীগ নেতা মাসুম আদালতে হাজির হয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটকে চাপ দেন। কিন্তু ব্যর্থ হয়ে তারা আসামিদের ছিনিয়ে নিয়ে যান।

তবে উপস্থিত পুলিশ সদস্যরা কাউন্সিলর শহিদুল ও মাসুমকে আটক করেন। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত তাদের একমাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন।

আসামি ছিনতাই

পৌর কাউন্সিলর ও যুবলীগ নেতা কারাগারে

 রাজশাহী ব্যুরো 
১৭ অক্টোবর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

মাদকের আসামি ছিনতাই ও সরকারি কাজে বাধাদানের মামলায় রাজশাহীর গোদাগাড়ী পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শহীদুল ইসলাম ও পৌরসভার কর্মচারী উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম কাউসার মাসুমকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। দণ্ডপ্রাপ্ত পাঁচ মাদকসেবী ছিনতাই মামলার দণ্ডিত আসামি। জানা যায়, মামলার সাজার মেয়াদ ছিল একমাস। কিন্তু ১৪ দিন সাজাভোগের পর তারা জামিন পান। তবে আদালতে নিয়মিত হাজিরা না দেওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয়। রোববার রাজশাহীর অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) সাবিহা সুলতানার আদালতে হাজির হলে তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ১৫ মার্চ সন্ধ্যায় পৌরসভার হলের মোড় এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৫ মাদকসেবীকে গ্রেফতার করে মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর। পরে তাদের গোদাগাড়ীর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার নাজমুন নাহারের আদালতে হাজির করা হয়। এ সময় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ৫ মাদকসেবীকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দিয়ে পুলিশে দেন। এদিকে তাদের ছাড়িয়ে নিতে ওয়ার্ড কাউন্সিলর শহীদুল ইসলাম ও যুবলীগ নেতা মাসুম আদালতে হাজির হয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটকে চাপ দেন। কিন্তু ব্যর্থ হয়ে তারা আসামিদের ছিনিয়ে নিয়ে যান।

তবে উপস্থিত পুলিশ সদস্যরা কাউন্সিলর শহিদুল ও মাসুমকে আটক করেন। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত তাদের একমাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন