চাটমোহরে নৌকার তিন প্রার্থী পরিবর্তন
jugantor
ইউপি নির্বাচন
চাটমোহরে নৌকার তিন প্রার্থী পরিবর্তন

  চাটমোহর (পাবনা) প্রতিনিধি  

২৪ অক্টোবর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনের তফশিল ঘোষণার পর থেকেই পাবনার চাটমোহরে জমজমাট হয়ে উঠেছে প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারণা। গ্রামেগঞ্জে বিরাজ করছে উৎসবমুখর পরিবেশ। এই পালে আরও হাওয়া দিয়েছে শুক্রবার কেন্দ্র থেকে ঘোষিত নৌকা মনোনীত প্রার্থীদের নাম ঘোষণা হওয়ার পর থেকেই। অনেক প্রার্থী ঢাকা থেকে না ফিরলেও তাদের অনুসারীরা এক প্রকার ‘বিজয়োৎসবে’ মেতে উঠেছেন। এদিকে আগে যারা বিদ্রোহী প্রার্থী হয়েছিলেন তারা নৌকার টিকিট না পেয়ে হতাশ হয়ে পড়েছেন। এরমধ্যে অনেকেই নৌকার টিকিট না পেলেও বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে নির্বাচনে অংশ নেবেন বলে একাধিক সূত্রে জানা গেছে। তবে দল মনোনীত নৌকা প্রার্থীদের জেতাতে একজোট হয়ে মাঠে নামবে বলে জানায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সংশ্লিষ্ট সূত্র। জানা গেছে, উপজেলার ১১টি ইউনিয়নের মধ্যে আগে যারা নৌকার প্রার্থী মনোনীত ছিলেন তাদের মধ্যে এবার তিনটি পরিবর্তন আনা হয়েছে। এরমধ্যে নারী চেয়ারম্যান প্রার্থী রয়েছেন একজন। প্রার্থী পরিবর্তন করা তিনটি ইউনিয়নের মধ্যে নিমাইচড়া ইউনিয়নে বর্তমানে চেয়ারম্যান রয়েছেন প্রকৌশলী কামরুজ্জামান খোকন। তবে তাকে এবার নৌকা প্রতীক দেওয়া হয়নি।

সেখানে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসাবে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক নূরজাহান বেগম মুক্তিকে এ প্রতীক দেওয়া হয়েছে। এছাড়া মথুরাপুর ইউনিয়নে সরদার আজিজুল হকের জায়গায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহ আলম এবং ছাইকোলা ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান নজরুল ইসলামের জায়গায় নুরুজ্জামান নুরুকে নৌকা প্রতীক দেওয়া হয়েছে।

ইউপি নির্বাচন

চাটমোহরে নৌকার তিন প্রার্থী পরিবর্তন

 চাটমোহর (পাবনা) প্রতিনিধি 
২৪ অক্টোবর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনের তফশিল ঘোষণার পর থেকেই পাবনার চাটমোহরে জমজমাট হয়ে উঠেছে প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারণা। গ্রামেগঞ্জে বিরাজ করছে উৎসবমুখর পরিবেশ। এই পালে আরও হাওয়া দিয়েছে শুক্রবার কেন্দ্র থেকে ঘোষিত নৌকা মনোনীত প্রার্থীদের নাম ঘোষণা হওয়ার পর থেকেই। অনেক প্রার্থী ঢাকা থেকে না ফিরলেও তাদের অনুসারীরা এক প্রকার ‘বিজয়োৎসবে’ মেতে উঠেছেন। এদিকে আগে যারা বিদ্রোহী প্রার্থী হয়েছিলেন তারা নৌকার টিকিট না পেয়ে হতাশ হয়ে পড়েছেন। এরমধ্যে অনেকেই নৌকার টিকিট না পেলেও বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে নির্বাচনে অংশ নেবেন বলে একাধিক সূত্রে জানা গেছে। তবে দল মনোনীত নৌকা প্রার্থীদের জেতাতে একজোট হয়ে মাঠে নামবে বলে জানায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সংশ্লিষ্ট সূত্র। জানা গেছে, উপজেলার ১১টি ইউনিয়নের মধ্যে আগে যারা নৌকার প্রার্থী মনোনীত ছিলেন তাদের মধ্যে এবার তিনটি পরিবর্তন আনা হয়েছে। এরমধ্যে নারী চেয়ারম্যান প্রার্থী রয়েছেন একজন। প্রার্থী পরিবর্তন করা তিনটি ইউনিয়নের মধ্যে নিমাইচড়া ইউনিয়নে বর্তমানে চেয়ারম্যান রয়েছেন প্রকৌশলী কামরুজ্জামান খোকন। তবে তাকে এবার নৌকা প্রতীক দেওয়া হয়নি।

সেখানে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসাবে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক নূরজাহান বেগম মুক্তিকে এ প্রতীক দেওয়া হয়েছে। এছাড়া মথুরাপুর ইউনিয়নে সরদার আজিজুল হকের জায়গায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহ আলম এবং ছাইকোলা ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান নজরুল ইসলামের জায়গায় নুরুজ্জামান নুরুকে নৌকা প্রতীক দেওয়া হয়েছে।

 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন