নির্বাচনে হেরে কম্বল ফেরত নিলেন নারী ইউপি সদস্য
jugantor
নির্বাচনে হেরে কম্বল ফেরত নিলেন নারী ইউপি সদস্য

  যুগান্তর প্রতিবেদন, টাঙ্গাইল  

৩০ নভেম্বর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

নির্বাচনে হেরে কম্বল ফেরত নিলেন নারী ইউপি সদস্য

নির্বাচনে হেরে ক্ষোভে দুই বছর আগে দেওয়া ৪ কম্বল ফেরত নিলেন নারী ইউপি সদস্য। টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার সহদেবপুর ইউনিয়নের ৭, ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী ইউপি সদস্য রমেছা খানমের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ উঠেছে।

রোববার সহদেবপুর ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এতে ইউনিয়নের ৭, ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী ইউপি সদস্য রমেছা খানম পরাজিত হন। নির্বাচিত হন জোসনা বেগম।

অভিযোগে জানা যায়, ২ বছর আগে শীতে ইউনিয়ন পরিষদের অনুদানের টাকায় আকুয়া গ্রামের মকবুল হোসেন, আনু মিয়া, সংকু ও বংকুকে একটি করে কম্বল দেন তৎকালীন সংরক্ষিত নারী ইউপি সদস্য রমেছা খানম। তবে সেই সময় তিনি যাদের কম্বল দিয়েছিলেন তারা বিজয়ী প্রার্থী জোসনা বেগমের প্রতিবেশী। নির্বাচনে পরাজিত হওয়ায় রমেছা খানম তাদের কাছ থেকে ওই কম্বলগুলো ফেরত নিয়েছেন।

মকবুল হোসেন জানান, ২ বছর আগে আমরা চার ভাইকে চারটি কম্বল দিয়েছিলেন রমেছা খানম। রোববারের নির্বাচনে তাদের পাশের বাড়ির প্রার্থী জোসনা বেগমের পক্ষে তারা কাজ করেন। জোসনার পক্ষে কাজ করায় এবং রমেছা খানম পরাজিত হওয়ায় কম্বলগুলো ফেরত নিয়েছেন।

এ বিষয়ে রমেছা খানম জানান, কম্বল ফেরত নেওয়ার মতো কোনো দামি জিনিস হলো। এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা কথা। বিরোধীরা এখন তার বিরুদ্ধে এ ধরনের মিথ্যা অপপ্রচার চালানো শুরু করেছে বলে দাবি করেন তিনি।

নির্বাচনে হেরে কম্বল ফেরত নিলেন নারী ইউপি সদস্য

 যুগান্তর প্রতিবেদন, টাঙ্গাইল 
৩০ নভেম্বর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ
নির্বাচনে হেরে কম্বল ফেরত নিলেন নারী ইউপি সদস্য
ফাইল ছবি

নির্বাচনে হেরে ক্ষোভে দুই বছর আগে দেওয়া ৪ কম্বল ফেরত নিলেন নারী ইউপি সদস্য। টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার সহদেবপুর ইউনিয়নের ৭, ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী ইউপি সদস্য রমেছা খানমের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ উঠেছে।

রোববার সহদেবপুর ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এতে ইউনিয়নের ৭, ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী ইউপি সদস্য রমেছা খানম পরাজিত হন। নির্বাচিত হন জোসনা বেগম।

অভিযোগে জানা যায়, ২ বছর আগে শীতে ইউনিয়ন পরিষদের অনুদানের টাকায় আকুয়া গ্রামের মকবুল হোসেন, আনু মিয়া, সংকু ও বংকুকে একটি করে কম্বল দেন তৎকালীন সংরক্ষিত নারী ইউপি সদস্য রমেছা খানম। তবে সেই সময় তিনি যাদের কম্বল দিয়েছিলেন তারা বিজয়ী প্রার্থী জোসনা বেগমের প্রতিবেশী। নির্বাচনে পরাজিত হওয়ায় রমেছা খানম তাদের কাছ থেকে ওই কম্বলগুলো ফেরত নিয়েছেন।

মকবুল হোসেন জানান, ২ বছর আগে আমরা চার ভাইকে চারটি কম্বল দিয়েছিলেন রমেছা খানম। রোববারের নির্বাচনে তাদের পাশের বাড়ির প্রার্থী জোসনা বেগমের পক্ষে তারা কাজ করেন। জোসনার পক্ষে কাজ করায় এবং রমেছা খানম পরাজিত হওয়ায় কম্বলগুলো ফেরত নিয়েছেন।

এ বিষয়ে রমেছা খানম জানান, কম্বল ফেরত নেওয়ার মতো কোনো দামি জিনিস হলো। এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা কথা। বিরোধীরা এখন তার বিরুদ্ধে এ ধরনের মিথ্যা অপপ্রচার চালানো শুরু করেছে বলে দাবি করেন তিনি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন