চকরিয়ায় লতিফ হত্যার মূলহোতা গ্রেফতার
jugantor
চকরিয়ায় লতিফ হত্যার মূলহোতা গ্রেফতার

  চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি  

১৭ জানুয়ারি ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

কক্সবাজারের চকরিয়ায় ব্যবসায়ী লতিফ উল্লাহ হত্যার মূলহোতা মিজানুর রহমানকে পটিয়া থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। হত্যা মামলা থেকে বাঁচতে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরে ধরা দিলেও বাঁচতে পারেননি। তিনি ঝালকাঠি সদর উপজেলার বালকদিয়া বিনয়কাঠি ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের মৃত জলিল আকনের ছেলে।

জানা গেছে, চট্টগ্রাম মাদকদ্রব্য অধিদপ্তরের অভিযানে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ৫০০ পিস ইয়াবাসহ পটিয়ায় আটক হন মিজান। মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দিয়ে তাকে পটিয়া থানায় সোপর্দ করা হয়। এদিকে লতিফ হত্যায় জড়িত অভিযুক্তকে ধরতে তার দুটি মোবাইল নম্বর ট্র্যাকিং অব্যাহত ছিল র‌্যাব, পুলিশসহ বিভিন্ন আইন প্রয়োগকারী সংস্থার। এতে ১৪ জানুয়ারি সন্ধ্যা পর্যন্ত ওই দুটি মোবাইলের সর্বশেষ লোকেশন পাওয়া যায় পটিয়া থানায় গ্রেফতার হওয়া মিজানের নম্বরে। বিষয়টি ১৫ জানুয়ারি বিকালে নিশ্চিত করেছে চকরিয়া থানা পুলিশ।

চকরিয়া থানার ওসি ওসমান গণি বলেন, মিজানকে লতিফ হত্যা মামলায় গ্রেফতার দেখানো হচ্ছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

চকরিয়া থানার ওসি (তদন্ত) জুয়েল ইসলাম বলেন, মিজানের নম্বরে লতিফ উল্লাহর বিকাশ এজেন্ট থেকে ৩০ হাজার টাকার লেনদেন হয়। ওই এলাকার সিসি টিভির ফুটেজ ও মোবাইলের সূত্র ধরে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

২ জানুয়ারি রাতে চকরিয়া পৌরসভার হাইস্কুল সড়কে কুপিয়ে হত্যা করা হয় লতিফ উল্লাহকে।

চকরিয়ায় লতিফ হত্যার মূলহোতা গ্রেফতার

 চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি 
১৭ জানুয়ারি ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

কক্সবাজারের চকরিয়ায় ব্যবসায়ী লতিফ উল্লাহ হত্যার মূলহোতা মিজানুর রহমানকে পটিয়া থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। হত্যা মামলা থেকে বাঁচতে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরে ধরা দিলেও বাঁচতে পারেননি। তিনি ঝালকাঠি সদর উপজেলার বালকদিয়া বিনয়কাঠি ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের মৃত জলিল আকনের ছেলে।

জানা গেছে, চট্টগ্রাম মাদকদ্রব্য অধিদপ্তরের অভিযানে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ৫০০ পিস ইয়াবাসহ পটিয়ায় আটক হন মিজান। মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দিয়ে তাকে পটিয়া থানায় সোপর্দ করা হয়। এদিকে লতিফ হত্যায় জড়িত অভিযুক্তকে ধরতে তার দুটি মোবাইল নম্বর ট্র্যাকিং অব্যাহত ছিল র‌্যাব, পুলিশসহ বিভিন্ন আইন প্রয়োগকারী সংস্থার। এতে ১৪ জানুয়ারি সন্ধ্যা পর্যন্ত ওই দুটি মোবাইলের সর্বশেষ লোকেশন পাওয়া যায় পটিয়া থানায় গ্রেফতার হওয়া মিজানের নম্বরে। বিষয়টি ১৫ জানুয়ারি বিকালে নিশ্চিত করেছে চকরিয়া থানা পুলিশ।

চকরিয়া থানার ওসি ওসমান গণি বলেন, মিজানকে লতিফ হত্যা মামলায় গ্রেফতার দেখানো হচ্ছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

চকরিয়া থানার ওসি (তদন্ত) জুয়েল ইসলাম বলেন, মিজানের নম্বরে লতিফ উল্লাহর বিকাশ এজেন্ট থেকে ৩০ হাজার টাকার লেনদেন হয়। ওই এলাকার সিসি টিভির ফুটেজ ও মোবাইলের সূত্র ধরে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

২ জানুয়ারি রাতে চকরিয়া পৌরসভার হাইস্কুল সড়কে কুপিয়ে হত্যা করা হয় লতিফ উল্লাহকে।

 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন