খালেদা জিয়াকে ছাড়া নির্বাচনে যাবে না বিএনপি : রিজভী

  যুগান্তর রিপোর্ট ২১ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, খালেদা জিয়ার নেতৃত্বেই বিএনপি দলনিরপেক্ষ সরকারের অধীনে আগামী জাতীয় নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে। খালেদা জিয়াবিহীন কোনো জাতীয় নির্বাচনে বিএনপি যাবে না, যাওয়ার প্রশ্নই আসে না।

রোববার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সহ-দফতর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু, মুনির হোসেন, বেলাল আহমেদ প্রমুখ।

রিজভী বলেন, এই মুহূর্তে বিএনপির ইশতেহার হচ্ছে- দেশনেত্রীর মুক্তি, জাতীয় সংসদ ভেঙে দেয়া এবং দলনিরপেক্ষ সরকারের অধীনে জাতীয় নির্বাচন। গত শনিবার আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের দেয়া বক্তব্যের কড়া সমালোচনা করে রিজভী বলেন, দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রীকে নির্বাচন থেকে দূরে রাখার গভীর ষড়যন্ত্র। এ বক্তব্য জবরদস্তিমূলক একতরফা নির্বাচনেরই ইঙ্গিতবহ। ওই দিন ওবায়দুল কাদের বলেছিলেন, বিএনপি আসুক না আসুক, যথাসময়ে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। কে এলো আর না এলো তাতে কিছু আসে-যায় না।

ওবায়দুল কাদেরকে উদ্দেশ করে রিজভী বলেন, আপনার বক্তব্যে পরিষ্কার হয়ে গেছে খালেদা জিয়ার জনপ্রিয়তাই আপনাদের ভয়। আর সে জন্যই আদালতের ঘাড়ে বন্দুক রেখে মিথ্যা তথ্যের ওপর সাজানো মামলায় তাকে কারাবন্দি করে রেখেছেন। জামিনযোগ্য মামলায়ও আপনাদের নিষেধের কারণেই জামিন পাচ্ছেন না তিনি। তিনি গুরুতর অসুস্থ হয়ে কষ্ট পেলেও তাকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে না। রিজভী বলেন, খালেদা জিয়াকে বন্দি করে ৫ জানুয়ারি-মার্কা একতরফা নির্বাচনের খায়েশ আর পূরণ হবে না। সব ষড়যন্ত্রের জবাব দিতে জনগণ প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে।

সারা দেশে বন্দুকযুদ্ধের নামে মারণযজ্ঞ চলছে অভিযোগ করে রিজভী বলেন, গত তিন দিনে চার জেলায় বিচারবহির্ভূত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছে সাতজন। এ মাসে যেন পোকামাকড়ের মতো বিচারবহির্ভূত মানুষ হত্যার হিড়িক চলছে। শনিবার রাতেও বরিশালে সাদা পোশাকের পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধের’ নামে দু’জন নিহত হয়েছে। দেশীয় ও আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠনগুলো বারবার উদ্বেগ জানালেও তাতে সরকারের টনক নড়ছে না। তিনি বলেন, কয়েক দিন আগে জাতিসংঘের মানবাধিকার সংস্থা বাংলাদেশের গুম-খুন ও বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা জানিয়েছে। একই সঙ্গে জাতিসংঘ অবিলম্বে তা বন্ধের দাবি জানিয়ে সেসব ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত দাবি করেছে। কিন্তু অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে, বর্তমানে দেশে যেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বিচারবহির্ভূত হত্যার নামে কিলিং প্র্যাকটিস করছে। অবিলম্বে বন্দুকযুদ্ধের নামে বিচারবহির্ভূতভাবে মানুষ হত্যা বন্ধের জোর দাবি জানাচ্ছি। একই সঙ্গে এ সরকারের আমলে সংঘটিত সব বিচারবহির্ভূত হত্যার তদন্ত দাবি করছি।

রিজভী আরও বলেন, পবিত্র রমজানেও দেশজুড়ে লোডশেডিংয়ের পাশাপাশি চলছে গ্যাস ও পানির তীব্র সংকট। গ্যাস সংকটে রাজধানী ঢাকাসহ বিভিন্ন এলাকায় মানুষের চুলা জ্বলছে না। ফলে সেহরি ও ইফতারি তৈরি করতে মানুষ হিমশিম খাচ্ছে। এর সঙ্গে যোগ হয়েছে পানি সংকট। আর এ কারণে মানুষ রান্নাবান্না থেকে শুরু করে অজু কিংবা গোসলের পানিও পাচ্ছে না। বিভিন্ন এলাকায় পানির জন্য হাহাকার চলছে। হাঁড়ি-পাতিল নিয়ে মানুষ রাস্তায় বিক্ষোভ করছে। গ্রামে গ্রামে চলছে ভয়াবহ বিদ্যুৎ বিপর্যয়। এমনকি ইফতার, সেহরি ও তারাবির নামাজের সময় নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ দেয়ার সরকারি ঘোষণা জনগণের সঙ্গে খাঁটি প্রহসন।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
bestelectronics

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.