মতলব ইউএনও অফিস থেকে দরপত্র ছিনতাই
jugantor
মতলব ইউএনও অফিস থেকে দরপত্র ছিনতাই
সিসি ক্যামেরার ফুটেজ জব্দ

  চাঁদপুর প্রতিনিধি  

১৮ জানুয়ারি ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

মতলব দক্ষিণ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কক্ষ থেকে প্রকল্পের দরপত্র ছিনতাই হয়েছে। জেলা পরিষদের সদস্য আল-আমীন ফরাজীসহ বেশ কয়েকজন সোমবার দুপুর পৌনে ২টার দিকে বাক্স ভেঙে দরপত্র ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এতে মাইন উদ্দিন দেওয়ান নামে একজনকে আটক করেছে পুলিশ। আল-আমীন ফরাজীসহ ছয়জনের নামে মামলা হয়েছে। সিসি ক্যামেরায় ধরা পড়েছে ছিনতাইয়ের দৃশ্য।

জানা গেছে, বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির আওতায় ২০২১-২০২২ অর্থবছরে গ্রামীণ মাটির রাস্তা টেকসইকরণের লক্ষ্যে হেরিন বোন বন্ডকরণ (এইচবিবি) প্রল্পের (২য় পর্যায়) আওতাধীন পাঁচটি প্যাকেজের দরপত্র জমা দেওয়ার শেষ সময় ছিল সোমবার দুপুুর ১টা। ঠিকাদারদের দরপত্র জমা হওয়ার পর প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) রবিউল ইসলাম দরপত্রের বাক্স সিলগালা করে চলে যান। এ সময় আল আমিন ফরাজী তার দলবল নিয়ে ইউএনওর কক্ষে ঢুকে দরপত্র ছিনিয়ে নিয়ে যায়। পিআইও রবিউল ইসলাম বলেন, নিয়ম অনুযায়ী দুপুর ১টার মধ্যে দরপত্র জমা নেওয়া হয়। এরপর বাক্সটি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কক্ষে সিলগালা করে রাখা হয়। কিছুক্ষণ পর শুনতে পান বাক্স ভেঙে দরপত্র ছিনতাই হয়ে গেছে। তিনি বিষয়টি ইউএনওকে জানান ও মামলা করেন। সহকারী কমিশনার ভূমি সেটু কুমার বড়ুয়া বলেন, ইউএনও অসুস্থ থাকায় আমি ঘটনাস্থলে যাই। কয়েকজন যুবক ইউএনও অফিসে ঢুকে বাক্স ভেঙে দরপত্র নিয়ে যাচ্ছে অফিসের সিসি ক্যামেরায় তার ধরা পড়েছে। ওসি মোহাম্মদ মহিউদ্দিন মিয়া বলেন, জেলা পরিষদের সদস্য আল আমিন ফরাজীকে প্রধান আসামি করে ৬ জনের বিরুদ্ধে দ্রুত বিচার আইনে মামলা হয়েছে।

মতলব ইউএনও অফিস থেকে দরপত্র ছিনতাই

সিসি ক্যামেরার ফুটেজ জব্দ
 চাঁদপুর প্রতিনিধি 
১৮ জানুয়ারি ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

মতলব দক্ষিণ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কক্ষ থেকে প্রকল্পের দরপত্র ছিনতাই হয়েছে। জেলা পরিষদের সদস্য আল-আমীন ফরাজীসহ বেশ কয়েকজন সোমবার দুপুর পৌনে ২টার দিকে বাক্স ভেঙে দরপত্র ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এতে মাইন উদ্দিন দেওয়ান নামে একজনকে আটক করেছে পুলিশ। আল-আমীন ফরাজীসহ ছয়জনের নামে মামলা হয়েছে। সিসি ক্যামেরায় ধরা পড়েছে ছিনতাইয়ের দৃশ্য।

জানা গেছে, বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির আওতায় ২০২১-২০২২ অর্থবছরে গ্রামীণ মাটির রাস্তা টেকসইকরণের লক্ষ্যে হেরিন বোন বন্ডকরণ (এইচবিবি) প্রল্পের (২য় পর্যায়) আওতাধীন পাঁচটি প্যাকেজের দরপত্র জমা দেওয়ার শেষ সময় ছিল সোমবার দুপুুর ১টা। ঠিকাদারদের দরপত্র জমা হওয়ার পর প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) রবিউল ইসলাম দরপত্রের বাক্স সিলগালা করে চলে যান। এ সময় আল আমিন ফরাজী তার দলবল নিয়ে ইউএনওর কক্ষে ঢুকে দরপত্র ছিনিয়ে নিয়ে যায়। পিআইও রবিউল ইসলাম বলেন, নিয়ম অনুযায়ী দুপুর ১টার মধ্যে দরপত্র জমা নেওয়া হয়। এরপর বাক্সটি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কক্ষে সিলগালা করে রাখা হয়। কিছুক্ষণ পর শুনতে পান বাক্স ভেঙে দরপত্র ছিনতাই হয়ে গেছে। তিনি বিষয়টি ইউএনওকে জানান ও মামলা করেন। সহকারী কমিশনার ভূমি সেটু কুমার বড়ুয়া বলেন, ইউএনও অসুস্থ থাকায় আমি ঘটনাস্থলে যাই। কয়েকজন যুবক ইউএনও অফিসে ঢুকে বাক্স ভেঙে দরপত্র নিয়ে যাচ্ছে অফিসের সিসি ক্যামেরায় তার ধরা পড়েছে। ওসি মোহাম্মদ মহিউদ্দিন মিয়া বলেন, জেলা পরিষদের সদস্য আল আমিন ফরাজীকে প্রধান আসামি করে ৬ জনের বিরুদ্ধে দ্রুত বিচার আইনে মামলা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন