নোয়াখালীতে বিজয়ী কাউন্সিলরের বাড়িতে হামলা ভাঙচুর
jugantor
নোয়াখালীতে বিজয়ী কাউন্সিলরের বাড়িতে হামলা ভাঙচুর

  নোয়াখালী প্রতিনিধি  

১৮ জানুয়ারি ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

নোয়াখালী পৌরসভা নির্বাচনে বিজয়ী কাউন্সিলরের বাড়িতে হামলা ও ভাঙচুরের অভিযোগ উঠেছে। পরাজিত প্রার্থীর অনুসারীরা এই হামলা চালিয়েছে। এ হামলায় কাউন্সিলরের ভাইসহ ৭ জন আহত হয়েছে। রোববার রাত ৮টার দিকে নোয়াখালী পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ফখরুদ্দিন মাহমুদ ফখরুলের সোনাপুর বাস স্ট্যান্ড সংলগ্ন বাড়িতে এ হামলার ঘটনা ঘটে। হামলায় আহতরা হলেন-সাব্বির, রিয়াজ, হৃদয়, ইসমাইল, রাহিম, মিলন ও শান্ত।

কাউন্সিলর ফখরুদ্দিন অভিযোগ করেন আমি তৃতীয় বারের মতো কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছি। রোববার অনুষ্ঠিত নির্বাচনে আমি প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী রিয়াজ উদ্দিন মিঠুকে ১ হাজার ৮শ ভোটে পরাজিত করে কাউন্সিলর হই। রাতে পরাজিত প্রার্থী রিয়াজ উদ্দিন মিঠুর সমর্থক মাদক কারবারি সিএনজি কামাল দেড় শতাধিক সন্ত্রাসী নিয়ে আমার বাড়িতে হামলা চালায়। হামলাকারীরা একটি পিকআপ, সাউন্ড বক্স, দুটি দোকানে ভাঙচুর করে।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে রিয়াজ উদ্দিন মিঠুর মুঠোফোনে একাধিকবার কল করা হলেও তিনি ধরেননি।

জানতে চাইলে সুধারাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নোয়াখালীতে বিজয়ী কাউন্সিলরের বাড়িতে হামলা ভাঙচুর

 নোয়াখালী প্রতিনিধি 
১৮ জানুয়ারি ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

নোয়াখালী পৌরসভা নির্বাচনে বিজয়ী কাউন্সিলরের বাড়িতে হামলা ও ভাঙচুরের অভিযোগ উঠেছে। পরাজিত প্রার্থীর অনুসারীরা এই হামলা চালিয়েছে। এ হামলায় কাউন্সিলরের ভাইসহ ৭ জন আহত হয়েছে। রোববার রাত ৮টার দিকে নোয়াখালী পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ফখরুদ্দিন মাহমুদ ফখরুলের সোনাপুর বাস স্ট্যান্ড সংলগ্ন বাড়িতে এ হামলার ঘটনা ঘটে। হামলায় আহতরা হলেন-সাব্বির, রিয়াজ, হৃদয়, ইসমাইল, রাহিম, মিলন ও শান্ত।

কাউন্সিলর ফখরুদ্দিন অভিযোগ করেন আমি তৃতীয় বারের মতো কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছি। রোববার অনুষ্ঠিত নির্বাচনে আমি প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী রিয়াজ উদ্দিন মিঠুকে ১ হাজার ৮শ ভোটে পরাজিত করে কাউন্সিলর হই। রাতে পরাজিত প্রার্থী রিয়াজ উদ্দিন মিঠুর সমর্থক মাদক কারবারি সিএনজি কামাল দেড় শতাধিক সন্ত্রাসী নিয়ে আমার বাড়িতে হামলা চালায়। হামলাকারীরা একটি পিকআপ, সাউন্ড বক্স, দুটি দোকানে ভাঙচুর করে।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে রিয়াজ উদ্দিন মিঠুর মুঠোফোনে একাধিকবার কল করা হলেও তিনি ধরেননি।

জানতে চাইলে সুধারাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন