শার্শায় শাকিব হত্যায় ৩ জন গ্রেফতার
jugantor
শার্শায় শাকিব হত্যায় ৩ জন গ্রেফতার

  বেনাপোল প্রতিনিধি  

২১ জানুয়ারি ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

যশোরের শার্শায় সোলায়মান হোসেন (শাকিব) হত্যার তিন আসামিকে গ্রেফতার করেছেন পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিআইবি) সদস্যরা। এ সময় ছিনতাই হওয়া ইজিবাইক উদ্ধার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় যশোরে পৃথক দুটি অভিযানে গ্রেফতার করা হয় তিন আসামিকে। আসামিরা হলেন যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার চান্দেরপোল গ্রামের জালাল উদ্দীনের ছেলে মনিরুল ইসলাম (৩০), যশোর বাঘাপাড়া গ্রামের নিজাম উদ্দীনের ছেলে মেহেদী হাসান মিলন (২২) ও চৌগাছা উপজেলার মাড়ুয়া গ্রামের রমজান আলীর ছেলে সাইফুল ইসলাম (৩০)।

১৯ জানুয়ারি শাকিবের নানা আকবার আলী বাদী হয়ে শার্শা থানায় অজ্ঞাত আসামি করে হত্যা মামলা করেছিলেন।

যশোর পিবিআইয়ের জেলা ইউনিট ইনচার্জ পুলিশ সুপার রেশমা শারমিন জানান, আসামিরা পেশাদার ছিনতাইকারী। পূর্বপরিকল্পিতভাবে শাকিবের ইজিবাইক ভাড়া করে তাকে খুন করে ইজিবাইক ছিনতাই করে পালিয়ে যায় তিন আসামি।

মনিরুল ও মেহেদীকে যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারের সামনে থেকে এবং সাইফুলকে চৌগাছা উপজেলার মাড়ুয়া বাজার থেকে গ্রেফতার করা হয়। পরে সাইফুলের স্বীকারোক্তিতে চৌগাছা বাজার এলাকার ছুটিপুর রোডে নুরুজ্জামান ইঞ্জিনিয়ারিং ওয়ার্কশপ থেকে ছিনতাই করা ইজিবাইকটি উদ্ধার করা হয়।

শার্শায় শাকিব হত্যায় ৩ জন গ্রেফতার

 বেনাপোল প্রতিনিধি 
২১ জানুয়ারি ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

যশোরের শার্শায় সোলায়মান হোসেন (শাকিব) হত্যার তিন আসামিকে গ্রেফতার করেছেন পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিআইবি) সদস্যরা। এ সময় ছিনতাই হওয়া ইজিবাইক উদ্ধার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় যশোরে পৃথক দুটি অভিযানে গ্রেফতার করা হয় তিন আসামিকে। আসামিরা হলেন যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার চান্দেরপোল গ্রামের জালাল উদ্দীনের ছেলে মনিরুল ইসলাম (৩০), যশোর বাঘাপাড়া গ্রামের নিজাম উদ্দীনের ছেলে মেহেদী হাসান মিলন (২২) ও চৌগাছা উপজেলার মাড়ুয়া গ্রামের রমজান আলীর ছেলে সাইফুল ইসলাম (৩০)।

১৯ জানুয়ারি শাকিবের নানা আকবার আলী বাদী হয়ে শার্শা থানায় অজ্ঞাত আসামি করে হত্যা মামলা করেছিলেন।

যশোর পিবিআইয়ের জেলা ইউনিট ইনচার্জ পুলিশ সুপার রেশমা শারমিন জানান, আসামিরা পেশাদার ছিনতাইকারী। পূর্বপরিকল্পিতভাবে শাকিবের ইজিবাইক ভাড়া করে তাকে খুন করে ইজিবাইক ছিনতাই করে পালিয়ে যায় তিন আসামি।

মনিরুল ও মেহেদীকে যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারের সামনে থেকে এবং সাইফুলকে চৌগাছা উপজেলার মাড়ুয়া বাজার থেকে গ্রেফতার করা হয়। পরে সাইফুলের স্বীকারোক্তিতে চৌগাছা বাজার এলাকার ছুটিপুর রোডে নুরুজ্জামান ইঞ্জিনিয়ারিং ওয়ার্কশপ থেকে ছিনতাই করা ইজিবাইকটি উদ্ধার করা হয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন