পুকুর খুঁড়তে গিয়ে মিলল ১৬টি কঙ্কাল

প্রকাশ : ২২ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  যশোর ব্যুরো

যশোর সদর উপজেলার দেয়াড়া ইউনিয়নের দুর্গাপুর গ্রামে পুকুর খুঁড়তে গিয়ে ১৬টি কঙ্কাল পাওয়া গেছে। এটি খোঁড়ার তিন দিনের মাথায় কঙ্কালগুলো পাওয়া যায়। সোমবার সকালে এ খবর চাউর হলে এলাকাবাসী ঘটনাস্থলে ভিড় জমায়। পুকুরটি শ্মশানের কাছে হওয়ায় লোকজন মনে করছেন এগুলো ওই শ্মশানের হতে পারে।

দিনমজুর অর্পণা রানী জানান, পুকুরের মাটি কাটার জন্য তাদের নিয়োগ করা হয়। তারা মোট ২৫ জন মিলে মাটি কাটার কাজ করছিলেন। মাটি খুঁড়তে খুঁড়তে ভেসে ওঠে মৃত মানুষের কঙ্কাল। প্রথমদিকে তারা সবাই একটু আতঙ্কের মধ্যে পড়ে। তারপর আস্তে আস্তে ষোলোটি মৃত মানুষের কঙ্কালের সন্ধান পান। গ্রামের লোকজন তাদের আশ্বস্ত করে এগুলো শ্মশানের মৃত মানুষের কঙ্কাল ছাড়া আর কিছু নয়। ওখানেই মাটি চাপা দেয়ার ব্যবস্থা করা হোক। তবে মাটি খুঁড়লে আরও কঙ্কালের সন্ধান পাওয়া যাবে বলে মনে করছেন শ্রমিকরা।

এদিকে গ্রামের প্রবীণ ব্যক্তি আলী হোসেন (৭৯) বলেন, শ্মশানের পাশ দিয়ে নদী ছিল। সেই নদী শুকিয়ে এখন খাল। বাপ-দাদাদের কাছে শুনেছি হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকেরা এখানে মৃত মানুষ পোড়াত। কখনও কখনও মৃত ব্যক্তিকে মাটিচাপা দিত। হয়তো সেই সময়কার মৃত মানুষের কঙ্কাল এগুলো।

দেয়াড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আনিসুর রহমান জানিয়েছেন, যেহেতু শ্মশানের আশপাশে কঙ্কালগুলোর সন্ধান পাওয়া গেছে এবং গ্রামবাসীর অভিমত কঙ্কালগুলো শ্মশানের। তাই কোনো আইনি ব্যবস্থার প্রয়োজন হবে না।