দেশের পতাকা ওড়ালেন মুহিতসহ তিনজন

লাকপা রির চূড়া জয়

  যুগান্তর রিপোর্ট ২৩ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

এভারেস্ট জয় করলেও লাকপা রির চূড়ায় কখনও ওড়েনি বাংলাদেশের পতাকা। সেই কাজ করেছেন এভারেস্ট জয়ী পর্বতারোহী এমএ মুহিত। বৃহস্পতিবার (১৭ মে) বিকালে তিনি লাকপা রি পর্বত জয় করেন। এ নিয়ে মুহিত হিমালয়ের ১১টি শৃঙ্গ জয় করলেন। লাকপা রি অভিযানে মুহিতের সঙ্গে আরও ছিলেন বাংলাদেশের পর্বতারোহী শায়লা পারভিন, কাজী বাহালুল মজনু এবং তিনজন শেরপা।

লাকপা রির শৃঙ্গে বাংলাদেশের পতাকা উড়িয়ে কিছু সময় অবস্থান করেন মুহিত, শায়লা ও মজনু। এরপর সোমবার কাঠমান্ডু ফিরে আসেন তারা। মুঠোফোনে মুহিত জানান, বাংলাদেশ থেকে ২৯ এপ্রিল নেপালে রওনা দেন তারা তিনজন। চারদিন কাঠমান্ডু থাকার পর লাকপা রির মিশন শুরু করেন। এ জন্য তিব্বতের দিকে যেতে হয়। অনুমতিও নিতে হয় চায়না-তিব্বত মাউন্টেনিয়ারিং অ্যাসোসিয়েশনের (সিটিএমএ) কাছ থেকে। তিব্বত দিয়ে যাওয়া ভীষণ কষ্টের।

সিপিএমএর অনুমতি নিয়ে ৩ ও ৪ মে তিব্বতের কেরুং শহরে থাকেন মুহিত বাহিনী। শহরটি বেশ ঠাণ্ডা। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে শহরটির অবস্থান নয় হাজার ফুট উঁচুতে। কেরুং শহরে থেকে মুহিত তার দলবল নিয়ে চলে যান তিং রি শহরে। এই শহরে ঠাণ্ডা আরও বেশি। কারণ শহরটি ১৪ হাজার ২০০ ফুট উঁচুতে। তিং রি থেকে ৭ মে শুরু হয় লাকপা রি জয়ে চূড়ান্ত অভিযান। এদিন চলে আসেন তারা এভারেস্টে বেসক্যাম্পে। বেসক্যাম্প থেকে মিডল ক্যাম্প হয়ে আসেন এভারেস্টের অ্যাডভান্সড ক্যাম্পে। এটি ২১ হাজার ফুট উঁচুতে। এখান থেকে ১৬ মে দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে মুহিত, শায়লা, মজনু আর তিনজন শেরপা যেতে থাকেন লাকপা রি পর্বত চূড়ায়। তাদের পাশাপাশি ইউরোপ থেকে আসা আরও দুটি দল লাকপা রি রওনা দেয়। কিন্তু আবহাওয়ার বৈরী আচরণে টিকতে না পেরে ইউরোপের দল দুটি ফিরে যায়। তবে এগিয়ে যেতে থাকেন মুহিতরা। রাত গড়িয়ে ভোরে সূর্যের আলো ছড়াতে শুরু করে তুষারের ওপর। চোখের সামনে লাকপা রি। কিন্তু এর চূড়া আরও বহু দূর। একজন আরেকজনের সঙ্গে দড়ি বেঁধে চূড়ার দিকে এগোতে থাকেন। এর মধ্যে আরেক দফা বিপত্তি। শক্ত বরফের পথ দিয়ে চলার সময় বড় ফাটলের মধ্যে পড়ে যান শায়লা পারভিন। টেনে তুলতে তুলতে দুপুর হয়ে আসে। এরপর আবারও যাত্রা। অবশেষে বাংলাদেশ সময় বেলা সোয়া ৩টায় লাকপা রির শৃঙ্গে পা ফেলেন মুহিত, শায়লা ও মজনু। মেলে ধরেন বাংলাদেশের লাল-সবুজ পতাকা।

লাকপা রি হিমালয় পর্বতমালার একটি শৃঙ্গ। বিশ্বের সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ এভারেস্টের প্রতিবেশী হিসেবে লাকপা রির পরিচিতি রয়েছে। উচ্চতায় এভারেস্টের চেয়ে ১৮০৩ মিটার ছোট এই পর্বতশৃঙ্গ।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×