সুস্থ থাকুন

রমজান ও ইফতার

প্রকাশ : ৩০ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  ডা. আলমগীর মতি

রমজান মাসে ইফতার একটি গুরুত্বপূর্ণ খাবার। এ সময় শরবত খাওয়ার প্রচলন রয়েছে। এর অবশ্য একটি ব্যাখ্যা আছে। শরবত একটি শক্তিবহুল পানীয়। দীর্ঘ সময় উপবাস থাকার ফলে আমাদের শরীরে পানিস্বল্পতা এবং শক্তিও ক্ষয় হয়ে থাকে।

এ কারণে ইফতারের প্রথম উপাদান হিসেবে শরবত দেহের এই দুটির চাহিদা মেটাতে সক্ষম হয়। ইফতারে আর একটি প্রধান খাবার হল ছোলা। এটিও শক্তির উৎস হিসেবে কাজ করে। ছোলায় আছে ক্যালসিয়াম, প্রোটিন, বি ভিটামিন ও শর্করা।

দেখা যায়, ইফতারে ডালের সমারোহ বেশি ঘটে। কোনো কোনো ক্ষেত্রে মাংসের প্রাধান্যও দেখতে পাওয়া যায়। ইফতারের নানা ধরনের পদের মধ্যে রয়েছে- শরবত, খেজুর, শসা, ছোলা, পেঁয়াজু, বেগুনি, হালিম, আলুর চপ, চিকেন ফ্রাই, জালি কাবাব, মুড়ি, চিড়া, সুতলি কাবাব, দইবড়া, জিলাপি, নুডলস, ফ্রায়েড রাইস, পনিরের পিঠাসহ নানা ধরনের তেলেভাজা। প্রতিটি খাবারই ক্যালরিবহুল ও মুখরোচক।

যেহেতু ইফতারে আমাদের অন্যান্য দিনের সকালের নাস্তার পরিবর্তে করা হয়। এ কারণে ক্যালরির কথা চিন্তা করে ইফতার গ্রহণ করলে কোনো অসুবিধা হয় না। আমরা সকালের নাস্তায় ব্যক্তিবিশেষে ২৫০-৫০০ পর্যন্ত ক্যালরি গ্রহণ করে থাকি। অথচ ইফতারে একই প্লেটে থাকে প্রায় ১১০০-১২০০ ক্যালরির খাবার।

সারাদিনের উপবাসের পর এত বেশি ক্যালরির খাবার ওজন যেমন বাড়িয়ে দেয় তেমনি হজমের গোলমাল হতে পারে। সেজন্য ইফতার হতে হবে হালকা ও সহজ পাচ্য।

ডা. আলমগীর মতি

হারবাল গবেষক ও চিকিৎসক

মডার্ন হারবাল গ্রুপ, ঢাকা।

মোবাইল ফোন : ০১৯১১৩৮৬৬১৭