প্রটোকল নেওয়া ভুয়া বিপ্লব কারাগারে
jugantor
প্রটোকল নেওয়া ভুয়া বিপ্লব কারাগারে

  চাঁদপুর প্রতিনিধি  

২২ মে ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বিচারপতি সেজে পুলিশ প্রটোকল নেওয়া বিপ্লব প্রধানকে (৪০) কারাগারে পাঠানো হয়েছে। শনিবার বিকালে তাকে চাঁদপুর আদালতে নেওয়া হলে বিচারক কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

মতলব দক্ষিণ থানা পুলিশ জানায়, শুক্রবার রাতে থানার এসআই মো. রুহুল আমিন বাদী হয়ে সরকারি কর্মচারী পরিচয় দেওয়ায় (১৭০/৪১৯ দণ্ডবিধিতে) বিপ্লবের বিরুদ্ধে মামলা করেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই আবুল ফজল বলেন, বিপ্লব প্রধানের বিরুদ্ধে মতলব থানায় এই মামলার আগে দুটি চেক ডিজঅনার মামলার ৩টি ওয়ারেন্ট ছিল। নতুন মামলা ও ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি হিসাবেও তাকে আদালতে পাঠানো হয়।

শুক্রবার নিজেকে উচ্চ আদালতের একজন বিচারপতি পরিচয় দিয়ে পুলিশ প্রটোকলে ঢাকা থেকে চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ উপজেলায় নিজের বাড়িতে যান বিপ্লব। পুলিশ কর্মকর্তারা বিপ্লবের বাড়িতে গিয়ে বসতঘরের অবস্থাসহ অন্যান্য বিষয় দেখার পর সন্দেহ হয়। পরে এ নিয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তিনি নিজেকে ভুয়া বিচারপতি হিসাবে পরিচয় দেওয়ার কথা স্বীকার করেন।

চাঁদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অর্থ) সুদীপ্ত রায় বলেন, ঢাকা থেকে দাউদকান্দি হয়ে মতলবে আসার পথে বিপ্লব ৯৯৯ নম্বরে ফোন দিয়ে পুলিশ প্রটোকল চান। বিষয়টি দাউদকান্দি পুলিশ কন্ট্রোল রুমকে জানানো হয়। দাউদকান্দি পুলিশ কন্ট্রোল রুম মতলব দক্ষিণ থানার ওসি মো. মহিউদ্দিন মিয়াকে জানায় এবং জানতে চায় বিপ্লব নামে কোনো বিচারপতি আছেন কিনা! পরে প্রাইভেট কারসহ বিপ্লবকে আটক করা হয়।

পুলিশ জানায়, আটক বিপ্লব প্রধান উপজেলার দিঘলদী গ্রামের মৃত মাহবুব প্রধানের ছেলে। তিনি একজন ওয়ার্কশপ ব্যবসায়ী।

প্রটোকল নেওয়া ভুয়া বিপ্লব কারাগারে

 চাঁদপুর প্রতিনিধি 
২২ মে ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বিচারপতি সেজে পুলিশ প্রটোকল নেওয়া বিপ্লব প্রধানকে (৪০) কারাগারে পাঠানো হয়েছে। শনিবার বিকালে তাকে চাঁদপুর আদালতে নেওয়া হলে বিচারক কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

মতলব দক্ষিণ থানা পুলিশ জানায়, শুক্রবার রাতে থানার এসআই মো. রুহুল আমিন বাদী হয়ে সরকারি কর্মচারী পরিচয় দেওয়ায় (১৭০/৪১৯ দণ্ডবিধিতে) বিপ্লবের বিরুদ্ধে মামলা করেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই আবুল ফজল বলেন, বিপ্লব প্রধানের বিরুদ্ধে মতলব থানায় এই মামলার আগে দুটি চেক ডিজঅনার মামলার ৩টি ওয়ারেন্ট ছিল। নতুন মামলা ও ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি হিসাবেও তাকে আদালতে পাঠানো হয়।

শুক্রবার নিজেকে উচ্চ আদালতের একজন বিচারপতি পরিচয় দিয়ে পুলিশ প্রটোকলে ঢাকা থেকে চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ উপজেলায় নিজের বাড়িতে যান বিপ্লব। পুলিশ কর্মকর্তারা বিপ্লবের বাড়িতে গিয়ে বসতঘরের অবস্থাসহ অন্যান্য বিষয় দেখার পর সন্দেহ হয়। পরে এ নিয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তিনি নিজেকে ভুয়া বিচারপতি হিসাবে পরিচয় দেওয়ার কথা স্বীকার করেন।

চাঁদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অর্থ) সুদীপ্ত রায় বলেন, ঢাকা থেকে দাউদকান্দি হয়ে মতলবে আসার পথে বিপ্লব ৯৯৯ নম্বরে ফোন দিয়ে পুলিশ প্রটোকল চান। বিষয়টি দাউদকান্দি পুলিশ কন্ট্রোল রুমকে জানানো হয়। দাউদকান্দি পুলিশ কন্ট্রোল রুম মতলব দক্ষিণ থানার ওসি মো. মহিউদ্দিন মিয়াকে জানায় এবং জানতে চায় বিপ্লব নামে কোনো বিচারপতি আছেন কিনা! পরে প্রাইভেট কারসহ বিপ্লবকে আটক করা হয়।

পুলিশ জানায়, আটক বিপ্লব প্রধান উপজেলার দিঘলদী গ্রামের মৃত মাহবুব প্রধানের ছেলে। তিনি একজন ওয়ার্কশপ ব্যবসায়ী।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন