সুস্থ থাকুন

ত্বকের র‌্যাশে করণীয়

  ডা. দিদারুল আহসান ০৫ জুন ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

শিশু

নবজাতক থেকে শুরু করে যে কোনো বয়সে ত্বকে র‌্যাশ বা লালচে ফুসকুড়ি উঠতে পারে। এমনকি পোড়া ত্বকেও র‌্যাশ হতে পারে। নিচের ৭টি কারণে প্রধানত র‌্যাশ হয়-

খাবারে অ্যালার্জি : এটি সবচেয়ে সাধারণ কারণ। এতে ত্বক লালচে হয়ে চুলকাতে পারে। চিকিৎসকের কাছে যাওয়ার ৪-৬ সপ্তাহ পর্যন্ত এই নির্দিষ্ট খাবার না খেয়ে দেখতে হবে ত্বকে র‌্যাশ ওঠে কিনা। কখনও কখনও খাবারে অ্যালার্জি থেকে মারাত্মক অ্যানাফাইলেকটিক রিঅ্যাকশন হতে পারে। অবিলম্বে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

ওষুধজনিত অ্যালার্জি : যে কোনো ওষুধ থেকেও এ সমস্যা হতে পারে। একে ড্রাগ ইরাপশনস বলে। ওষুধ বন্ধ রেখে জরুরি ভিত্তিতে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

অটোইমিউন ডিজিজ : দেহের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা যখন বিপাক ক্রিয়ার বিপরীতে কাজ করে তখন তাকে অটোইমিউন ডিজিজ বলে। সোরিয়াসিস এমন এক অসুখ যখন ত্বকে র‌্যাশ ওঠে। নাকের দুই পাশে প্রজাপতি আকৃতির লালচে র‌্যাশ এসএলই রোগের লক্ষণ।

ইনফেকশন : বিভিন্ন ভাইরাস সংক্রমণ যেমন চিকেন পক্স থেকে র‌্যাশ হয়। এ থেকে ব্যাকটেরিয়া বা ছত্রাক সংক্রমণ থেকে অসুস্থতা আরও জটিল হয়।

অধিক তাপমাত্রা : এ সময় ঘাম ত্বকের লোককূপ থেকে বের হতে পারে না ফলে র‌্যাশ ওঠে। স্থূলকায় লোকের দেহের ভাঁজেও র‌্যাশ উঠতে দেখা যায়।

মানসিক চাপ : এর ফলে দেহের ভেতরে বিভিন্ন রাসায়নিক পরিবর্তন ও র‌্যাশ ওঠে। মেডিটেশন ও উপযুক্ত ওষুধ গ্রহণের মাধ্যমে এ থেকে মুক্ত থাকা যায়।

স্পর্শকাতর ত্বক : সাবান, কসমেটিকস, পানি, ধোঁয়া থেকে অ্যালার্জির কারণে র‌্যাশ উঠতে পারে।

যে কোনো র‌্যাশকেই অবহেলা না করে কারণ শনাক্তের মাধ্যমে উপযুক্ত চিকিৎসা গ্রহণ করে ভালো থাকা যায়।

ডা. দিদারুল আহসান

ত্বক ও যৌন ব্যাধি বিশেষজ্ঞ

আল রাজী হাসপাতাল, ফার্মগেট, ঢাকা।

মোবাইল ফোন : ০১৭১৫৬১৬২০০

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter