রাজশাহীর তিন থানায় ঘুরেও মামলা নেয়নি পুলিশ
jugantor
মেয়েকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করা বাবাকে হাতুড়িপেটা
রাজশাহীর তিন থানায় ঘুরেও মামলা নেয়নি পুলিশ

  রাজশাহী ব্যুরো  

১৮ আগস্ট ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

রাজশাহীতে এক কলেজছাত্রীকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় হামলার শিকার বাবা মাথায় ব্যান্ডেজ নিয়ে ঘুরছেন থানায় থানায়। গত ৬ দিনেও তিন থানার পুলিশ তার মামলা নেয়নি। নগরীর মতিহার, চন্দ্রিমা ও জিআরপি থানায় মামলা করতে গিয়ে হয়রানির শিকার হন তিনি। বুধবার কলেজছাত্রীর বাবা রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়নে সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন।

অভিযোগে জানা গেছে, রাজশাহী মহিলা কলেজের ছাত্রীটিকে আসা যাওয়ার পথে উত্ত্যক্ত করত এলাকার এরফান খান মেরাজ, প্রিন্স ও রবিন নামের তিন কিশোর। ১২ আগস্ট সকালে মেয়েকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করেন তার বাবা। এরপর বখাটের দল সন্ধ্যায় আরও চার পাঁচজনকে সঙ্গে নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় স্টেশন এলাকায় তার দোকানে হামলা করে। তাকে ছুরিকাঘাত ও হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে মাথায় জখম করে। এ সময় নিবৃত্ত করতে গেলে আরও কয়েকজন ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে জখম করে তারা। কলেজছাত্রীটির বাবা অভিযোগে আরও বলেন, বখাটেরা নিজেদের ছাত্রলীগ কর্মী পরিচয় দিয়ে এলাকায় দাপিয়ে বেড়াচ্ছে। পুলিশও বখাটেরা ছাত্রলীগ করার কারণে বিষয়টি গুরুত্ব দিচ্ছে না।

এ ব্যাপারে রাজশাহী মহানগর পুলিশের মুখপাত্র অতিরিক্ত উপ-কমিশনার রফিকুল আলম বলেন, আমাদের কাছে এই ধরনের কোনো ঘটনার অভিযোগ নেই। ঘটনার বিষয়ে খোঁজ নেওয়া হবে বলে জানান তিনি। কেন মামলা হয়নি তারও তদন্ত করা হবে বলে আশ্বাস দেন এই পুলিশ কর্মকর্তা।

মেয়েকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করা বাবাকে হাতুড়িপেটা

রাজশাহীর তিন থানায় ঘুরেও মামলা নেয়নি পুলিশ

 রাজশাহী ব্যুরো 
১৮ আগস্ট ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

রাজশাহীতে এক কলেজছাত্রীকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় হামলার শিকার বাবা মাথায় ব্যান্ডেজ নিয়ে ঘুরছেন থানায় থানায়। গত ৬ দিনেও তিন থানার পুলিশ তার মামলা নেয়নি। নগরীর মতিহার, চন্দ্রিমা ও জিআরপি থানায় মামলা করতে গিয়ে হয়রানির শিকার হন তিনি। বুধবার কলেজছাত্রীর বাবা রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়নে সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন।

অভিযোগে জানা গেছে, রাজশাহী মহিলা কলেজের ছাত্রীটিকে আসা যাওয়ার পথে উত্ত্যক্ত করত এলাকার এরফান খান মেরাজ, প্রিন্স ও রবিন নামের তিন কিশোর। ১২ আগস্ট সকালে মেয়েকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করেন তার বাবা। এরপর বখাটের দল সন্ধ্যায় আরও চার পাঁচজনকে সঙ্গে নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় স্টেশন এলাকায় তার দোকানে হামলা করে। তাকে ছুরিকাঘাত ও হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে মাথায় জখম করে। এ সময় নিবৃত্ত করতে গেলে আরও কয়েকজন ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে জখম করে তারা। কলেজছাত্রীটির বাবা অভিযোগে আরও বলেন, বখাটেরা নিজেদের ছাত্রলীগ কর্মী পরিচয় দিয়ে এলাকায় দাপিয়ে বেড়াচ্ছে। পুলিশও বখাটেরা ছাত্রলীগ করার কারণে বিষয়টি গুরুত্ব দিচ্ছে না।

এ ব্যাপারে রাজশাহী মহানগর পুলিশের মুখপাত্র অতিরিক্ত উপ-কমিশনার রফিকুল আলম বলেন, আমাদের কাছে এই ধরনের কোনো ঘটনার অভিযোগ নেই। ঘটনার বিষয়ে খোঁজ নেওয়া হবে বলে জানান তিনি। কেন মামলা হয়নি তারও তদন্ত করা হবে বলে আশ্বাস দেন এই পুলিশ কর্মকর্তা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন