দিনাজপুর পৌরসভার বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন
jugantor
২১ কোটি টাকা বকেয়া
দিনাজপুর পৌরসভার বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন

  দিনাজপুর প্রতিনিধি  

০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

প্রায় ২১ কোটি টাকা বিদ্যুৎ বিল বকেয়া থাকায় দিনাজপুর পৌরসভা কার্যালয়ের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের বিক্রয় ও বিতরণকারী প্রতিষ্ঠান নর্দান ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানি-নেসকো। এতে স্থবির হয়ে পড়েছে পৌরসভার কার্যক্রম। ঝুঁকির মধ্যে পড়েছে পৌরসভা কার্যালয়ে মজুত করোনার ৪ হাজার টিকা। মঙ্গলবার বিকাল ৪টায় পৌরসভার বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয় নেসকো।

কোম্পানির দিনাজপুর-২ এর নির্বাহী প্রকৌশলী শাহাদত হোসেন জানান, প্রায় ১৫ বছর ধরে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করেনি দিনাজপুর পৌরসভা। এতে বকেয়া বিদ্যুৎ বিলের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ২১ কোটি ১৯ লাখ ৭৬ হাজার ৬০২ টাকা। তাদের একাধিকবার সুযোগ দেয়া হয়েছে। মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে।

পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী মিনারুল ইসলাম খান বলেন, আগাম কোনো নোটিশ না দিয়েই পৌরসভা কার্যালয়ের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেছে বিদ্যুৎ বিভাগ। তিনি প্রায় ১৮ কোটি টাকা বিদ্যুৎ বিল বকেয়া থাকার কথা স্বীকার করেছেন। পৌরসভার মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলমের সঙ্গে মোবাইল ফোনে বেশ কয়েকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

২১ কোটি টাকা বকেয়া

দিনাজপুর পৌরসভার বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন

 দিনাজপুর প্রতিনিধি 
০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

প্রায় ২১ কোটি টাকা বিদ্যুৎ বিল বকেয়া থাকায় দিনাজপুর পৌরসভা কার্যালয়ের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের বিক্রয় ও বিতরণকারী প্রতিষ্ঠান নর্দান ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানি-নেসকো। এতে স্থবির হয়ে পড়েছে পৌরসভার কার্যক্রম। ঝুঁকির মধ্যে পড়েছে পৌরসভা কার্যালয়ে মজুত করোনার ৪ হাজার টিকা। মঙ্গলবার বিকাল ৪টায় পৌরসভার বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয় নেসকো।

কোম্পানির দিনাজপুর-২ এর নির্বাহী প্রকৌশলী শাহাদত হোসেন জানান, প্রায় ১৫ বছর ধরে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করেনি দিনাজপুর পৌরসভা। এতে বকেয়া বিদ্যুৎ বিলের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ২১ কোটি ১৯ লাখ ৭৬ হাজার ৬০২ টাকা। তাদের একাধিকবার সুযোগ দেয়া হয়েছে। মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে।

পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী মিনারুল ইসলাম খান বলেন, আগাম কোনো নোটিশ না দিয়েই পৌরসভা কার্যালয়ের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেছে বিদ্যুৎ বিভাগ। তিনি প্রায় ১৮ কোটি টাকা বিদ্যুৎ বিল বকেয়া থাকার কথা স্বীকার করেছেন। পৌরসভার মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলমের সঙ্গে মোবাইল ফোনে বেশ কয়েকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন