সারিয়াকান্দিতে যুবলীগ নেতার গুদাম সিল
jugantor
সারিয়াকান্দিতে যুবলীগ নেতার গুদাম সিল
চাল জব্দ, জরিমানা

  বগুড়া ব্যুরো  

০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে এক যুবলীগ নেতার গুদাম থেকে সরকারের খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির এক হাজার ৩৩০ বস্তায় থাকা ৩৪ টন চাল জব্দ করা হয়েছে। একইসঙ্গে গুদাম সিলগালা ও অবৈধভাবে চাল মজুত করার অপরাধে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার (এনএসআই) তথ্যের ভিত্তিতে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জান্নাতুল নাইমের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত বুধবার সন্ধ্যায় বাগবেড় এলাকায় ওই গুদামে অভিযান চালায়।

আদালত ও স্থানীয় সূত্র জানায়, শাহজাহান আলীর দুই ছেলে স্থানীয় যুবলীগ নেতা শাহাদত হোসেন ও শাহীন আলম বাড়ির নিচতলায় গুদামে সরকারি খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ১৫ টাকা কেজি দরের চাল কিনে মজুদ করেন। এনএসআই’র তথ্যের ভিত্তিতে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জান্নাতুল নাইমের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত বুধবার সন্ধ্যায় সেখানে অভিযান চালায়। গুদামে অবৈধভাবে মজুত ১৩৩০ বস্তা চাল পাওয়া যায়। শাহীন আলম চালের উৎস ও কেনাবেচার কোনো রশিদ দেখাতে পারেননি। এছাড়া গুদামের কৃষিপণ্য বিপণন আইনের লাইসেন্স নেই। শাহীন অপরাধ স্বীকার করলে আদালত তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। ভবিষ্যতে যাতে অবৈধ ব্যবসা করতে না পারেন সেজন্য গুদামটি সিলগালা করা হয়। পরে অবৈধভাবে মজুত ৩৪ টন চাল জব্দ করে তা উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রকের জিম্মায় দেওয়া হয়।

সারিয়াকান্দিতে যুবলীগ নেতার গুদাম সিল

চাল জব্দ, জরিমানা
 বগুড়া ব্যুরো 
০২ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে এক যুবলীগ নেতার গুদাম থেকে সরকারের খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির এক হাজার ৩৩০ বস্তায় থাকা ৩৪ টন চাল জব্দ করা হয়েছে। একইসঙ্গে গুদাম সিলগালা ও অবৈধভাবে চাল মজুত করার অপরাধে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার (এনএসআই) তথ্যের ভিত্তিতে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জান্নাতুল নাইমের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত বুধবার সন্ধ্যায় বাগবেড় এলাকায় ওই গুদামে অভিযান চালায়।

আদালত ও স্থানীয় সূত্র জানায়, শাহজাহান আলীর দুই ছেলে স্থানীয় যুবলীগ নেতা শাহাদত হোসেন ও শাহীন আলম বাড়ির নিচতলায় গুদামে সরকারি খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ১৫ টাকা কেজি দরের চাল কিনে মজুদ করেন। এনএসআই’র তথ্যের ভিত্তিতে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জান্নাতুল নাইমের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত বুধবার সন্ধ্যায় সেখানে অভিযান চালায়। গুদামে অবৈধভাবে মজুত ১৩৩০ বস্তা চাল পাওয়া যায়। শাহীন আলম চালের উৎস ও কেনাবেচার কোনো রশিদ দেখাতে পারেননি। এছাড়া গুদামের কৃষিপণ্য বিপণন আইনের লাইসেন্স নেই। শাহীন অপরাধ স্বীকার করলে আদালত তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। ভবিষ্যতে যাতে অবৈধ ব্যবসা করতে না পারেন সেজন্য গুদামটি সিলগালা করা হয়। পরে অবৈধভাবে মজুত ৩৪ টন চাল জব্দ করে তা উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রকের জিম্মায় দেওয়া হয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন