চাঁপাইনবাবগঞ্জে সাংবাদিকদের অবস্থান কর্মসূচি
jugantor
পত্রিকা অফিসে হামলা
চাঁপাইনবাবগঞ্জে সাংবাদিকদের অবস্থান কর্মসূচি

  চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি  

০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

স্থানীয় দৈনিক পত্রিকা অফিসে ককটেল হামলার মামলা তদন্তে পুলিশের নিষ্ক্রিয়তার প্রতিবাদে সাংবাদিকরা চাঁপাইনবাবগঞ্জে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন। পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সমানে আমচত্বরে বেলা ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত অবস্থান কর্মসূচি পালন করা হয়।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রেস ক্লাব আয়োজিত অবস্থান কর্মসূচিতে জেলায় কর্মরত বিভিন্ন ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকরা অংশ নেন। তারা বলেন, ‘দৈনিক চাঁপাই চিত্র’ পত্রিকা কার্যালয়ে ককটেল হামলা ও এর সম্পাদককে হুমকির ঘটনা খুব ন্যক্কারজনক। এ ঘটনা স্বাধীন সাংবাদিকতার জন্য হুমকি। এভাবে শহরের প্রাণকেন্দ্রের পত্রিকা কার্যালয়ে হামলা কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। এ ঘটনায় পুলিশের নিষ্ক্রিয়তা নানান প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে। ঘটনা জেনেও পুলিশ তদন্তের নামে কালক্ষেপণ করছে। এ ব্যাপারে দ্রুত পদক্ষেপ নিতে তারা পুলিশের প্রতি আহ্বান জানান।

প্রেস ক্লাবের সভাপতি শহিদুল হুদা অলক বলেন, মানুষের নিরাপত্তা নেই। সাংবাদিকদের নিরাপত্তা নেই। সদর থানার ওসিকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, এ ঘটনায় আপনি কোন নাটকের জন্ম দিয়েছেন। ঘটনাস্থলে গিয়ে আপনি বলেছেন এটি নাকি ককটেল নয়। আপনি (ওসি) ককটেল চেনেন না, আপনি কিভাবে দায়িত্ব পালন করেন। ১৬ ডিসেম্বরের মধ্যে চিহ্নিত সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করা না হলে কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে।

পত্রিকা অফিসে হামলা

চাঁপাইনবাবগঞ্জে সাংবাদিকদের অবস্থান কর্মসূচি

 চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি 
০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

স্থানীয় দৈনিক পত্রিকা অফিসে ককটেল হামলার মামলা তদন্তে পুলিশের নিষ্ক্রিয়তার প্রতিবাদে সাংবাদিকরা চাঁপাইনবাবগঞ্জে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন। পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সমানে আমচত্বরে বেলা ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত অবস্থান কর্মসূচি পালন করা হয়।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রেস ক্লাব আয়োজিত অবস্থান কর্মসূচিতে জেলায় কর্মরত বিভিন্ন ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকরা অংশ নেন। তারা বলেন, ‘দৈনিক চাঁপাই চিত্র’ পত্রিকা কার্যালয়ে ককটেল হামলা ও এর সম্পাদককে হুমকির ঘটনা খুব ন্যক্কারজনক। এ ঘটনা স্বাধীন সাংবাদিকতার জন্য হুমকি। এভাবে শহরের প্রাণকেন্দ্রের পত্রিকা কার্যালয়ে হামলা কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। এ ঘটনায় পুলিশের নিষ্ক্রিয়তা নানান প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে। ঘটনা জেনেও পুলিশ তদন্তের নামে কালক্ষেপণ করছে। এ ব্যাপারে দ্রুত পদক্ষেপ নিতে তারা পুলিশের প্রতি আহ্বান জানান।

প্রেস ক্লাবের সভাপতি শহিদুল হুদা অলক বলেন, মানুষের নিরাপত্তা নেই। সাংবাদিকদের নিরাপত্তা নেই। সদর থানার ওসিকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, এ ঘটনায় আপনি কোন নাটকের জন্ম দিয়েছেন। ঘটনাস্থলে গিয়ে আপনি বলেছেন এটি নাকি ককটেল নয়। আপনি (ওসি) ককটেল চেনেন না, আপনি কিভাবে দায়িত্ব পালন করেন। ১৬ ডিসেম্বরের মধ্যে চিহ্নিত সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করা না হলে কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে।

 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন