‘বিএনপি মহাপাপীর দল’

বে-টার্মিনাল প্রকল্পের চেক হস্তান্তর

প্রকাশ : ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  চট্টগ্রাম ব্যুরো

আগামী নির্বাচনে বিএনপিকে ক্ষমতায় আসতে দেয়া যাবে না। কারণ এ দল মহাপাপীর দল, খুনির দল। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর জিয়াউর রহমান যেমন ক্যু ঠেকানোর নামে শত শত আর্মি অফিসার হত্যা করেছে, কর্নেল তাহেরের মতো একজন পঙ্গু মুক্তিযোদ্ধাকে ক্যামেরা ট্রায়ালের মাধ্যমে হত্যা করেছে। সে পথে খালেদা জিয়াও হত্যার রাজনীতি কায়েম করেছেন। গ্রেনেড হামলা করে তিনি আইভিসহ ২৩ জনকে হত্যা করেছেন। শেখ হাসিনাকে হত্যার চেষ্টা করেছেন। মঙ্গলবার চট্টগ্রাম বন্দরের বে-টার্মিনাল প্রকল্পের চেক হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে নৌমন্ত্রী শাজাহান খান এসব কথা বলেন।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নগরীর রেডিসন ব্লু হোটেলের মোহনা কক্ষে চট্টগ্রাম বন্দর চেয়ারম্যান জুলফিকার আজিজের সভাপতিত্বে চেক হস্তান্তর হয়। নৌমন্ত্রী বে-টার্মিনালের ব্যক্তি মালিকানাধীন ৬৮ একর ভূমি অধিগ্রহণের মূল্য বাবদ ৩৫২ কোটি ৬২ লাখ টাকার চেক তুলে দেন। চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন ইলিয়াস হোসেন ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (এলএ) মমিনুর রশীদ চেক গ্রহণ করেন।

বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, স্থানীয় এমপি এমএ লতিফ, চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম, চট্টগ্রাম চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম। স্বাগত বক্তব্যে বন্দর চেয়ারম্যান বে-টার্মিনাল প্রকল্পের বিস্তারিত তুলে ধরেন। চট্টগ্রাম সিটি মেয়র আ জ ম নাছির বলেন, বিশ্বের দরবারে বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের রোল মডেলে পরিণত হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাদেশ গড়তে শেখ হাসিনা অক্লান্ত পরিশ্রম করছেন। উন্নয়নের এ ধারবাহিকতা বজায় রাখতে আবার শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় আনতে হবে।

সমীক্ষা অনুযায়ী, হালিশহর উপকূলেই নির্মাণ করা হবে বে- টার্মিনাল। তীর থেকে প্রায় ৮০০ মিটার দূরে জেগে ওঠা চরের সঙ্গে যে চ্যানেলটি রয়েছে তার গভীরতা ৭ থেকে ১০ মিটার। সাগরের দিকে গভীরতা ১২ মিটারের বেশি। এ টার্মিনাল দিয়ে ১২ মিটার গভীর এবং ২৮০ মিটার দৈর্ঘ্যরে জাহাজ জেটিতে ভিড়তে পারবে। কর্ণফুলীর তীর ঘেঁষে গড়ে ওঠা চট্টগ্রাম বন্দরের বর্তমান জেটিগুলোতে ৯ দশমিক ৫ মিটার গভীর ও ১৯০ মিটার দৈর্ঘ্যরে জাহাজ ভিড়তে পারে না। বে-টার্মিনাল নির্মিত হলে সেখানে কনটেইনার ধারণক্ষমতা হবে ৫ লাখ টিইইউএস। পরে তা ৩০ লাখ টিইইউএস এ উন্নীত হবে। ৯০৭ একর ভূমির ওপর বে-টার্মিনাল প্রকল্প বাস্তবায়ন হবে। এর মধ্যে ব্যক্তি মালিকানাধীন ভূমি ৬৮ একর। এই ভূমি অধিগ্রহণ বাবদ ৩৫২ কোটি ৬২ লাখ টাকা মঙ্গলবার জেলা প্রশাসনের কাছে হস্তান্তর করে বন্দর কর্তৃপক্ষ।