যাদের শেষ বিশ্বকাপ

প্রকাশ : ১২ জুন ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  স্পোর্টস ডেস্ক

ইনিয়েস্তা, কাহিল, মাসচেরানো,

সব ভালোর শেষ আছে। বিশ্বকাপকে সামনে রেখে ফিফা ডটকম এমন চার খেলোয়াড়ের দিকে ফিরে তাকিয়েছে, যারা বিশ্বকাপে একটি অকাট্য চিহ্ন রেখেছেন এবং রাশিয়া বিশ্বকাপেই নিজেদের শেষবারের মতো বড় মঞ্চে তুলে ধরবেন-

আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা

জোহানেসবার্গের সকার সিটি স্টেডিয়াম। দক্ষিণ আফ্রিকার স্থানীয় সময় রাত ১০টা ৩৭ মিনিট। তখনই বিশ্বকাপের ইতিহাসে ইনিয়েস্তা নিজেকে অনন্য স্থানে নিয়ে যান। নেদারল্যান্ডসের বিরুদ্ধে অতিরিক্ত সময়ে তার ভলির জন্য ভবিষ্যত প্রজন্মের কাছে তিনি সবচেয়ে ভালোভাবে স্মরণীয় হয়ে থাকবেন।

২০১০ সালে নিজেদের ইতিহাসের প্রথম বিশ্বকাপ শিরোপা জেতে স্পেন। ফাইনালে নেদারল্যান্ডসকে কান্নায় ভাসিয়ে একমাত্র গোল করে দলকে জয় এনে দেন ইনিয়েস্তা। কান্নায় ভিজে বিদায় নিয়েছেন নিজের প্রিয় ক্লাব বার্সেলোনা থেকেও। ২০১৮ বিশ্বকাপ দিয়ে ৩৪ বছর বয়সী ইনিয়েস্তাও ইতি টানবেন নিজের আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের।

হাভিয়ের মাসচেরানো

খেলে ফেলেছেন টানা তিনটি বিশ্বকাপ। জেতা হয়নি ট্রফি। বিশ্বকাপ না জেতার আক্ষেপ নিয়ে আরও একবার মাঠে নামবেন নিজের শেষ মিশনে। হাভিয়ের মাসচেরানো দু’বার কোয়ার্টার ফাইনালে এবং শেষবার ২০১৪ ফাইনালে খেলেও ছোঁয়া পাননি শিরোপার। ৩৩ বছর বয়সী এই সাবেক বার্সেলোনা ফুটবলারকে আর্জেন্টিনা দল ট্রফি জিতে জানাতে পারে দারুণ এক বিদায়।

রাফায়েল মারকেজ

৩৮ বছর বয়সী এই সাবেক বার্সেলোনা তারকার মেক্সিকো বিশ্বকাপে বড় একটা দল নয়। বিশ্বকাপে মেক্সিকোর বলার মতো কোনো সাফল্য না থাকলেও দেশের হয়ে রাফায়েল মারকেজ খেলবেন নিজের শেষ বিশ্বকাপ। যদি মাঠে নামাও হয়ে যায় তবে গড়ে ফেলবেন তারই দেশের গোলরক্ষক আন্তোনিও কারভালহো আর জার্মানির লোথার ম্যাথিউসের সঙ্গে সবচেয়ে বেশি, পাঁচবার বিশ্বকাপ খেলার রেকর্ড।

টিম কাহিল

অস্ট্রেলিয়া দলের সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য খেলোয়াড়ের নাম টিম কাহিল। দেশটির ফুটবল ইতিহাসে তিনি বড় মাপের ফুটবলার। তিনটি বিশ্বকাপে (২০০৬, ২০১০ ও ২০১৪) অংশ নেয়া ৩৮ বছর বয়সী কাহিল তার শেষ বিশ্বকাপে দারুণ কিছু প্রত্যাশা করতেই পারেন।