রাজনীতির ছায়া জার্মান শিবিরে

  যুগান্তর ডেস্ক    ১৪ জুন ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

জার্মানি,

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগানের সঙ্গে মেসুত ওজিল ও ইলখাইন গুন্ডোয়ানের ছবি তোলার জের প্রভাবিত করতে পারে জার্মানির বিশ্বকাপের একাদশ নির্বাচনে। এমনটাই অনুমান অলিভার বিয়েরহফের।

সাবেক জার্মান তারকা বিয়েরহফ রাশিয়া বিশ্বকাপে নিজের দেশের ফুটবল দলের ব্যবসায়িক ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করছেন। তার বক্তব্য, ‘এমনিতে লোককে খুশি করতে কোনো সিদ্ধান্ত নেয় না লো। সস্তা জনপ্রিয়তার তত্ত্বেও ওর বিশ্বাস নেই। অনুশীলন ও ম্যাচে ফুটবলারদের পারফরম্যান্সই ওর বিচারের শেষ কথা। কিন্তু ওই দু’জন ফুটবলারকে ঘিরে কেলেঙ্কারির যে ঘটনা ঘটেছে তা সামান্য হলেও এবার একাদশ নির্বাচনে প্রভাব ফেলতে পারে বলে আমার মনে হয়।’

ওজিল ও গুন্ডোয়ান- দু’জনেরই শহর জার্মানির গেলেসেনকারখেনে। দু’জনেরই বাবা-মা তুরস্কজাত। গত মে মাসে তারা তুরস্কের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে লন্ডনে ছবি তোলেন। জার্মানির বিশ্বকাপ দল ঘোষণার একদিন আগে সে ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় চলে আসে। তারপরই জার্মানি যথাক্রমে অস্ট্রিয়া ও সৌদি আরবের সঙ্গে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচ খেলে। এই দুটি ম্যাচের সময়ই ওজিল ও গুন্ডোয়ানকে খেলানো নিয়ে জার্মানিতে বিতর্কের ঝড় ওঠে।

তুরস্কের সঙ্গে জার্মানির সম্পর্ক খুবই খারাপ। জার্মান সমাজ তুরস্কের অভিবাসীদের প্রতি ক্ষিপ্ত। বিশেষ করে ২০১৭ সালে তুরস্ক বংশোদ্ভূত জার্মান সাংবাদিক দেনিজ ইউসেল গ্রেফতার হওয়ার পর। তুরস্ক সরকার তার বিরুদ্ধে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগ এনেছে।

বিয়েরহফ বলেছেন, ‘অভিবাসীদের নিয়ে আলোচনা চলতেই থাকবে। ওজিলদের ছবিটা দিয়েও শেষ হবে না আলোচনা। আমার অনুরোধ একটাই, বিশ্বকাপের সময় খেলোয়াড়দের মনটা যাতে পুরোপুরি ফুটবলেই থাকে সেটা যেন সবাই মাথায় রাখেন।’

একই দাবি করেছেন জার্মান গোলরক্ষক ম্যানুয়েল নুয়ারও। বলেছেন, ‘দয়া করে সবাই পুরো দেশটার কথা ভাবুন। শুধু দু’জন ফুটবলারকে নিয়ে ভাবার কোনো দরকার নেই।’ গোটা পরিস্থিতি পর্বেক্ষণ করে বিয়েরহফ বলতে চেয়েছেন, এ ধরনের ঝামেলায় যেসব ফুটবলারের মন খেলা থেকে সরে যেতে পারে, তাদের হয়তো জোয়াচিম লো তার প্রথম এগারোতে রাখবেন না। ওয়েবসাইট।

ঘটনাপ্রবাহ : বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৮

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter