আর্জেন্টিনার হারে হৃদয় ভেঙেছে তাদেরও

  স্পোর্টস রিপোর্টার ২৩ জুন ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

আর্জেন্টিনা,

বিশ্বকাপ ফুটবল এলেই আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল দু’ভাগে বিভক্ত হয়ে পড়েন দেশের কোটি কোটি মানুষ। প্রিয় দলের জার্সি এবং পতাকা কেনার ধুম পড়ে সমর্থকদের মধ্যে। বড়দের পাশাপাশি ম্যাচের দিন প্রিয় দলের জার্সি পড়ে সমর্থন প্রকাশ করেন তারা। দল জিতলে যেমন আনন্দ মিছিল বের করেন। তেমনি হারলে হৃদয় ভেঙে যায় তাদের। অশ্র“সিক্ত হয় তাদের চোখ। মনের মণিকোঠায় বিষাদের ছায়া পড়ে। তবে বাংলাদেশের ব্রাজিল ও আর্জেন্টাইনরা একটু বেশিই আবেগি। কেউ রাতভর কাঁদেন। আবার কেউবা প্রাত্যহিক কাজেও অনীহা প্রকাশ করেন।

ক্রোয়েশিয়ার কাছে বিধ্বস্ত হওয়ার খবর শুনেই কান্নায় ভেঙে পড়েন ষোড়শী আর্জেন্টাইন ভক্ত সানজিদা আলম। কলাবাগানের বাসিন্দা সানজিদা এবার এসএসসি পরীক্ষার্থী। কিন্তু মেসির জাদু দেখার অপেক্ষায় রাত জেগেছেন তিনি। কিন্তু খেলা দেখে আর নিজের কান্না ধরে রাখতে পারেননি সানজিদা। আর্জেন্টিনার হারে রাতভর কেঁদেছেন তিনি। মুঠোফোনে এ প্রতিবেদককে কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, ‘এই খেলা দেখার জন্য কি রাত জেগেছিলাম। কত আশা করেছিলাম, মেসি দলকে জেতাবেন। নিজের পায়ের জাদু দেখাবেন। কিন্তু হল তার উল্টোটা। ব্রাজিল ভক্ত বন্ধুরা সকাল হতেই টিপ্পনী কাটছে। এখনও খুব কান্না পাচ্ছে।’

রাজধানীর পশ্চিম যাত্রাবাড়ীর সরকার বাড়িতে বড় পর্দায় খেলা দেখার আয়োজন করেন শাহ আলী আকাশ। আগের ম্যাচেও এমন আয়োজন ছিল। আইসল্যান্ডের সঙ্গে ড্র করায় আশায় বুক বেঁধেছিলেন ক্রোয়েশিয়াকে হারিয়ে উৎসব করবেন মেসিরা। কিন্তু আর্জেন্টিনা বড় হারের দিকে এগিয়ে যেতে থাকলে ম্যাচ শেষ হওয়ার আগেই প্রজেক্টর সরিয়ে ফেলেন। কান্নায় ভেঙে পড়েন আকাশ। তার কথায়, ‘প্রজেক্টর এনেছি। বড় পর্দায় আর্জেন্টিনার জয় দেখানোর জন্য বন্ধুদের আমন্ত্রণ জানিয়েছি। কিন্তু যখন দেখলাম বড় হারের পথেই এগোচ্ছে আর্জেন্টিনা, তখন খুব কষ্ট লেগেছে। এত আয়োজন করে কি এই খেলা দেখতে চেয়েছিলাম। সারা রাত ঘুমাতে পারিনি।’

আর্জেন্টিনার হারে কেঁদে ঘুমিয়েছেন মিরপুরের বাসিন্দা মনোয়ারা হোসেন। ব্যাংকার পরিবারের এই বধূ আর্জেন্টাইন সমর্থক। পরিবারের কর্তা আরশাদ হোসেন পেশায় একজন ব্যাংকার এবং ব্রাজিলের একনিষ্ঠ সমর্থক। কিন্তু ক্রোয়েশিয়ার কাছে হারায় এতটাই কষ্ট পেয়েছেন মনোয়ারা হোসেন যে, সকালে রান্না করেননি। মুঠোফোনে আরশাদ হোসেন বলেন, ‘সকালে বাসায় নাস্তা করতে পারিনি ভাই। আর্জেন্টিনা হারায় স্ত্রীর মন খারাপ ছিল। তাই সে রান্না করেনি। কি আর করব, হোটেলে গিয়েই খেতে হল সকালে।’ তিনি যোগ করেন, ‘আসলে আমরা খুব আবেগি। যেখানে বাস্তবতার কোনো স্থান নেই।’

ঘটনাপ্রবাহ : বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৮

 

 

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter