পরিসংখ্যানে উরুগুয়ে ফ্রান্স মহারণ

  স্পোর্টস ডেস্ক ০৬ জুলাই ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

পরিসংখ্যানে উরুগুয়ে ফ্রান্স মহারণ

* সপ্তমবারের মতো বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে খেলবে ফ্রান্স। শেষ আটের আগের ছয় ম্যাচে চার জয়ের সঙ্গে আছে দুই হার। অন্যদিকে এর আগে উরুগুয়ে বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনাল খেলেছে চারবার।

ইংল্যান্ডকে ১৯৫৪ সালে, সোভিয়েত ইউনিয়নকে ১৯৭০ সালে ও ঘানাকে ২০১০ সালে শেষ আটে হারিয়ে সেমিফাইনালে পৌঁছে তারা। অন্য ম্যাচটিতে ১৯৬৬ সালে পশ্চিম জার্মানির কাছে হারে দু’বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা।

* বিশ্বকাপে পেনাল্টি শুটআউটে ফ্রান্সের জয়-হার সমান দুটি করে। সর্বশেষ ২০০৬ আসরের ফাইনালে ইতালির কাছে টাইব্রেকারে হারে ফরাসিরা। অন্যদিকে বিশ্বকাপে একবারই পেনাল্টি শুটআউটের অভিজ্ঞতা আছে উরুগুয়ের। ২০১০ বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনালে ঘানাকে টাইব্রেকারে হারিয়ে শেষ চারে পা রাখে অস্কার তাবারেজের দল।

* দু’দলই এবার গ্রুপপর্ব শেষ করেছে গ্রুপসেরা হয়ে। তিন ম্যাচেই জয় নিয়ে ‘এ’ গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন হয় উরুগুয়ে। আর দুই জয় ও এক ড্রয়ে ‘সি’ গ্রুপের সেরা ফ্রান্স। শেষ ষোলোতে ৪-৩ গোলে আর্জেন্টিনাকে হারায় দিদিয়ে দেশমের দল। আর পর্তুগালের বিপক্ষে ২-১ গোলের জয় পায় উরুগুয়ে।

* নিষেধাজ্ঞায় শেষ আটের গুরুত্বপূর্ণ লড়াইয়ে ফ্রান্স আজ পাচ্ছে না মিডফিল্ডার ব্লেইস মাতুইদিকে। এছাড়া দলে আরও চারজন (জিরুদ, পাভার্দ, পগবা ও তোলিসো) রয়েছেন যারা আর একটি হলুদ কার্ড পেলেই এক ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ হবেন। অন্যদিকে টুর্নামেন্টে উরুগুয়ের হয়ে একমাত্র হলুদ কার্ডটি দেখেছেন রদ্রিগো বেন্তানকুর।

* স্পেন বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিলেও স্প্যানিশ ক্লাব অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের চারজন খেলোয়াড়কে দেখা যেতে পারে ফ্রান্স-উরুগুয়ে ম্যাচে। ফ্রান্স দলে আছেন আঁতোয়া গ্রিজমান ও লুকাস হার্নান্দেজ। আর উরুগুয়ের রক্ষণে আছেন হোসে মারিয়া হিমেনেস ও দিয়েগো গডিন।

* ১৯৩০ ও ১৯৫০ সালে দু’বার বিশ্বকাপ জিতেছে উরুগুয়ে। অন্যদিকে ১৯৯৮ সালে নিজেদের একমাত্র বিশ্বকাপ ঘরে তোলে ফ্রান্স। দু’দলের লড়াই হবে চলতি বিশ্বকাপের একমাত্র কোয়ার্টার ফাইনাল যেখানে দুই সাবেক বিশ্বচ্যাম্পিয়ন পরস্পরের মুখোমুখি হবে।

* টানা সাত জয়ের আত্মবিশ্বাস নিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে খেলতে নামবে উরুগুয়ে। শেষ সাত ম্যাচে নিজেরা ১৩টি গোল করার বিপরীতে হজম করেছে মোটে একটি। চলতি আসরে গ্রুপপর্বে একমাত্র দল হিসেবে কোনো গোল হজম করেনি তারা। গত বছরের নভেম্বরে অস্ট্রিয়ার কাছে শেষ হেরেছিল উরুগুয়ে।

* শেষ ষোলো ম্যাচে ফ্রান্সের হার মাত্র একটি। গত মার্চে ঘরের মাঠে প্রীতি ম্যাচে তারা হেরেছিল কলম্বিয়ার কাছে। নিজেদের শেষ ১০ ম্যাচে আট জয়ের সঙ্গে আছে দুটি ড্র।

* নিজনি নোভগোরোদ স্টেডিয়ামে চলতি আসরের শেষ ম্যাচ হবে এটি। দু’দলই এখানে খেলবে প্রথমবারের মতো। এই মাঠে আগের পাঁচ ম্যাচে গোল হয়েছে ১৭টি। এখানে ক্রোয়েশিয়া ও ডেনমার্কের শেষ ষোলোর ম্যাচটির নিষ্পত্তি হয়েছে টাইব্রেকারে।

* এর আগে বিশ্বকাপে উরুগুয়ে ও ফ্রান্সের দেখা হয়েছে তিনবার। ১৯৬৬ সালে গ্রুপপর্বে প্রথম দেখায় ২-১ গোলের জয় লাতিন পরাশক্তিদের। পরের দুই ম্যাচ হয়েছে গোলশূন্য ড্র। পাঁচ বছর আগে দুই দলের সর্বশেষ দেখা হয়েছিল প্রীতি ম্যাচে। ওই ম্যাচে ১-০ গোলে জেতে স্বাগতিক উরুগুয়ে।

* ফ্রান্সের ফরোয়ার্ড কিলিয়ান এমবাপ্পে চলতি বিশ্বকাপে প্রতিপক্ষের জালে পাঁচটি শট নিয়েছেন। সবগুলোই লক্ষ্যে ছিল এবং তার মধ্যে তিনটি গোল হয়েছে।

* বিশ্বকাপ ও ইউরো মিলিয়ে ফরাসি ফরোয়ার্ড আঁতোয়া গ্রিজমান শেষ পাঁচ নকআউট ম্যাচে করেছেন ছয় গোল।

* চলতি আসরে উরুগুয়ের শেষ তিনটি গোলই করেছেন এডিনসন

কাভানি। ওয়েবসাইট।

ঘটনাপ্রবাহ : বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৮

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter