সেই ফ্রান্স আর এই ফ্রান্স এক নয়

  যুগান্তর ডেস্ক    ১৪ জুলাই ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

সেই ফ্রান্স আর এই ফ্রান্স এক নয়
ফ্রান্স দল

২০১৬ ইউরোর ফাইনালে হেরে যাওয়া ফ্রান্স দলের মানসিকতার চেয়ে বিশ্বকাপের দলটার মানসিকতা আলাদা বলে মনে করেন দলটির ফরোয়ার্ড অলিভিয়ের জিরু। রাশিয়ায় এ পর্যন্ত কোনো গোল না পাওয়া সত্ত্বেও ৩১ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ড বিশ্বকাপের ফাইনালে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষেও শুরুর একাদশে থাকবেন বলে মনে করা হচ্ছে।

চলতি আসরে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে পেরুর বিপক্ষে উসমান দেম্বেলের পরিবর্তে সুযোগ পাওয়ার পর সব ম্যাচেই শুরুর একাদশে দেখা গেছে তাকে। রোববার মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় রাত ৯টায় মুখোমুখি হবে দু’দল। নকআউট পর্বে আর্জেন্টিনা, উরুগুয়ে ও বেলজিয়ামকে হারানো ফ্রান্সকেই ফাইনালে ফেভারিট ধরা হচ্ছে।

২০১৬ ইউরোর ফাইনালে পর্তুগালের কাছে ১-০ গোলে হেরে যাওয়ার পর আরেকটি আন্তর্জাতিক শিরোপা জয়ের সুযোগ ফরাসিরা হারাতে চায় না বলে জানান জিরু, ‘ইউরোর সেমিফাইনালে যখন আমরা জার্মানিকে হারালাম, একটু বেশিই খুশি ছিলাম। বেলজিয়ামের বিপক্ষে আলাদা ম্যাচ।

একইরকম অনুভূতি নয়। জানি, আমাদের আরও একটা ম্যাচ জিততে হবে। কাজটা শেষ করতে সত্যিকারের মনোযোগ আর একাগ্রতা দরকার। এবারের ম্যাচ আলাদা। এখানে আসতে আমরা অনেকটা পথ পাড়ি দিয়েছি।

এখন আমরা এই সুযোগ হারাতে চাই না। আপনি শুধু প্রতিভা দিয়ে একটা বিশ্বকাপ জিততে পারেন না। শুধু প্রতিভাই যথেষ্ট নয়, দক্ষতাও প্রয়োজন। কাজের ৭০ শতাংশ হল মানসিক দৃঢ়তা। যদি আপনি সতীর্থদের জন্য কাজ করতে প্রস্তুত থাকেন এবং একে অপরের প্রতি প্রতিশ্র“তিবদ্ধ হন, তারপর যে কোনো কিছুই ঘটতে পারে।’

জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ:

বিশ্বকাপে ৩২ দলের মধ্য থেকে ফাইনালে উঠে আসা চাট্টিখানি কথা নয়। সেই কাজটিই এবার করে দেখিয়েছে ফ্রান্স। ফাইনালে তারা। এই ম্যাচটিকে জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ বলে অভিহিত করলেন ফরাসি মিডফিল্ডার ব্লাইসি মাতুইদি।

বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে দুটি হলুদ কার্ডের জেরে খেলতে না পারলেও সেমিতে অসাধারণ পারফরম্যান্স করেছেন এই জুভেন্টাস মিডফিল্ডার। ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে মাঠে নামার আগে সংবাদ সম্মেলনে আসেন তিনি। সেখানেই এই ফ্রেঞ্চ ফুটবলার বলেন, ‘এটা আমার জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ। এই ম্যাচকে ঘিরে চাপ থাকবেই।

কিন্তু চাপকে ইতিবাচকভাবে দেখতে হবে, যাতে আমাদের ওপর জেঁকে না বসে।’ টুর্নামেন্টে সব ম্যাচেই আধিপত্য বিস্তার করে খেলেছে ফ্রান্স। দলের মূল তারকা হয়ে উঠেছেন এমবাপ্পে। মাতুইদি বলেন, ‘আক্রমণভাগের দিক দিয়ে আমরা বেশ ভালো দল। দলে যে খেলোয়াড়রা রয়েছে তারা অভিজ্ঞ এবং কৌশলী। আমরা ফাইনালটি ভিন্ন পন্থায় খেলতে চাই।’ ওয়েবসাইট।

ঘটনাপ্রবাহ : বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৮

 

 

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter