কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের পুনর্মিলনীতে পুলিশের বাধা

প্রকাশ : ০৩ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  যুগান্তর রিপোর্ট

কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের পুনর্মিলনীতে পুলিশ বাধা দিয়েছে। শুক্রবার বিকালে সেগুনবাগিচায় আন্দোলনকারীরা পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান করতে গেলে পুলিশ বাধা দেয়।

পরে বিক্ষোভের মুখে এক ঘণ্টা পর অনুষ্ঠান করার অনুমতি দেয়া হয়। সেগুনবাগিচার কেন্দ্রীয় কচিকাঁচার মেলার মিলনায়তনে আন্দোলনকারীদের সংগঠন বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের সারা দেশের সংগঠকরা এসে বাধার মুখে পড়েন।

পুলিশের রমনা বিভাগের ডিসি মারুফ হোসেন সরদার যুগান্তরকে বলেন, কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীরা অনুষ্ঠানের কোনো অনুমতি নেয়নি। অনুমতি দেয়া হয়েছে- এমন কোনো ডকুমেন্ট তারা দেখাতে পারেনি। সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের আহ্বায়ক হাসান আল মামুন যুগান্তরকে বলেন, মৌখিকভাবে অনুমতি দেয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার অনুমতির আবেদন করা হলে পুলিশ বলেছিল, শুক্রবার সকালে অনুমতির বিষয়টি জানিয়ে দেয়া হবে। অনুমতি দেয়া হবে না- এমন কোনো কথা পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়নি।

বিকাল ৩টার দিকে কচিকাঁচার মেলার মিলনায়তনের সামনে সারা দেশ থেকে আসা নেতারা বিক্ষোভ শুরু করেন। ওই সময় ফটক আটকে পুলিশের কয়েকজন সদস্য দাঁড়িয়ে ছিলেন।

পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে বাকবিতণ্ডা হয় কয়েকজন নেতার। তখন সেখানে অবস্থানরত পুলিশ সদস্যরা বলেন, লিখিত অনুমতি ছাড়া কোনো অনুষ্ঠান করতে দেয়া হবে না। পরে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারী নেতারা সেখানে বিক্ষোভ শুরু করেন।

বিক্ষোভের সময় সংগঠনের যুগ্ম আহ্বায়ক নুরুল হক বলেন, ‘বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সারা দেশের কোথাও কোনো সভা-সমাবেশে বাধা দেয়া হবে না। তারপরও কেন তাদের বাধা দেয়া হচ্ছে, সেটা আনুষ্ঠানিকভাবে না জানানো পর্যন্ত কেউ এখান থেকে যাবে না।’

এক ঘণ্টা বিক্ষোভের পর বিকাল ৪টার দিকে পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়, তাদের এক ঘণ্টার জন্য অনুমতি দেয়া হয়েছে।