ব্যাংক ঋণ কেলেঙ্কারি

দুই প্রতিষ্ঠানের দুই শীর্ষ কর্মকর্তাকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ

  যুগান্তর রিপোর্ট ১১ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

কেলেঙ্কারি

ব্যাংক ঋণ কেলেঙ্কারির ঘটনায় দায়ের করা মামলায় দুটি ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানের শীর্ষস্থানীয় দুই কর্মকর্তাকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। বৃহস্পতিবার বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কেএম হাফিজুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চ পৃথক এ আদেশ দেন।

আদালত সূত্র জানায়, সোনালী ব্যাংক ঋণ কেলেঙ্কারির ঘটনায় সীমা নিটওয়্যার অ্যান্ড ডাইং প্রাইভেট লিমিটেডের চেয়ারম্যান আবদুর রশিদ মিয়ার অব্যাহতির আদেশ বাতিল করে তাকে আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল হেলেনা বেগম চায়না। দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী ওমর ফারুক।

আমিন উদ্দিন মানিক জানান, ঢাকার বিভাগীয় স্পেশাল জজ আদালত গত বছরের ১০ মে তাকে চার্জ শুনানির পর মামলা থেকে অব্যাহতি দিয়েছিলেন। সেই অব্যাহতি আদেশের বিরুদ্ধে দুদক হাইকোর্টে রিভিশন মামলা দায়ের করে। হাইকোর্ট গত বছরের ৮ অক্টোবর এ বিষয়ে রুল দিয়েছিলেন। বৃহস্পতিবার সেই রুলটি যথাযথ ঘোষণা করে রায় দেয়া হয়েছে।

ফলে তার বিরুদ্ধে মামলা চলবে। সোনালী ব্যাংক মহিলা শাখা বর্তমানে ফরেন এক্সচেঞ্জ শাখা, নারায়ণগঞ্জ থেকে মেসার্স সীমা নিটওয়্যার অ্যান্ড ডাইং প্রাইভেট লিমিটেডের পক্ষে ৬৫ শতক জমি বন্ধক রেখে ক্ষমতার অপব্যবহার করে ১৩ কোটি ৪৬ লাখ ৪৫ হাজার ৬৪৬ টাকা ঋণ গ্রহণ করে। যা পরে সুদেমূলে ২২ কোটি ৪৯ লাখ ৬৬ হাজার ২১৩ টাকা হয়। এ টাকা আত্মসাৎ করা হয়।

বিষয়টি অনুসন্ধান করে দুদকের উপ- পরিচালক মো. সিরাজ উদ্দিন ২০১৩ সালের ২৯ জানুয়ারী তিনজনকে আসামি করে নারায়ণগঞ্জ সদর থানায় মামলা করেন।

ইকসল ফুডের এমডিকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ : বেসিক ব্যাংক ঋণ কেলেঙ্কারির ঘটনায় মেসার্স ইকসল ফুড বেভারেজ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সাইফুল ইসলামের জামিনের বিষয়ে জারি করা রুল খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে তাকে আদালতে দুই সপ্তাহের মধ্যে আত্মসমর্পণ করতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল হেলেনা বেগম চায়না। দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী একেএম ফজলুল হক।

তবে আসামিপক্ষে আদালতে কেউ উপস্থিত ছিলেন না। আমিন উদ্দিন মানিক জানান, গত বছরের ১৫ মে হাইকোর্ট তাকে জামিন দিয়ে রুল দিয়েছিলেন। ১৫ জুলাই আপিল বিভাগ দুদকের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে তার হাইকোর্টের দেয়া জামিন বাতিল করে দুই সপ্তাহের মধ্যে নিু আদালতে আত্মসমর্পণের কথা বলেছিলেন। এখন বৃহস্পতিবার রুলও খারিজ হয়ে গেল।

তার আত্মসমর্পণ না করে উপায় নেই। বর্তমানে সে পলাতক আছে। তিনি জানান, বেসিক ব্যাংক বংশাল শাখা থেকে স্বাক্ষরবিহীন আবেদনের মাধ্যমে ঋণ নিয়ে সুদে-আসলে ৭ কোটি ৮৫ লাখ ৩২ হাজার ৯৮৭ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে দুদকের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ সিরাজুল হক ২০১৭ সালের ৬ ডিসেম্বর তিনজনকে আসামি করে বংশাল থানার মামলা করেন।

সাইফুল ইসলাম ছাড়া মামলায় অন্য আসামিরা হলেন মেসার্স ইকসল ফুড অ্যান্ড বেভারেজ লিমিটেডের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান ও বেসিক ব্যাংক বংশাল শাখার ম্যানেজার মো. সেলিম।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×