অভিনেতা তানভীর হাসানের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

  যুগান্তর রিপোর্ট ১৯ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

তানভীর হাসান সুমন মঞ্চ, টিভি ও চলচ্চিত্রের অভিনেতা এবং পরিচালক তানভীর হাসান সুমনের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে উত্তরা (পূর্ব) থানার পুলিশ। শুক্রবার দুপুরে লাশ উদ্ধারের পর বিকালে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

ঢামেক মর্গে তানভীর হাসান সুমনের বোনের স্বামী ইশতিয়াক আহমেদ যুগান্তরকে বলেন, বাসায় শোবার ঘরে ফ্যানের সঙ্গে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে সুমন। ঘুমানোর কথা বলে রাতে ওই রুমে একাই ছিল সে। তার স্ত্রী কোহিনূর নাহার আখন্দের সঙ্গে কথা বলে পুলিশ জানতে পেরেছে, তানভীর হাসান অনেক দিন থেকেই মানসিকভাবে অসুস্থ ছিলেন। পুলিশ ধারণা করছে, মানসিকভাবে অসুস্থতার কারণেই হয়তো তানভীর হাসান আত্মহত্যা করেছেন।

উত্তরা (পূর্ব) থানার ডিউটি অফিসার এসআই মনিরুজ্জামান যুগান্তরকে জানান, পরিবার থেকে খবর পেয়ে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে উত্তরা ৪ নম্বর সেক্টরের ৪ নম্বর সড়কে তানভীর হাসান সুমনের বাসায় যায় পুলিশ। সেখানে গিয়ে প্রাথমিক তদন্তে তারা জানতে পারেন, তানভীর হাসান সুমন বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১২টা দিকে ঘুমাতে যান। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে রুম পরিষ্কার করার জন্য গৃহপরিচারিকা রুমের ভেতর প্রবেশ করেন। তখন প্রথম তিনি তানভীর হাসানকে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান। তিনি বলেন, ময়নাতদন্ত শেষে বলা যাবে কিভাবে মারা গেছেন তিনি। জানা গেছে, তানভীর ঢাকা লিটল থিয়েটারের সদস্য ছিলেন। পরে তিনি নাট্যকেন্দ্রে যোগ দেন। নাটকে অভিনয়ের পাশাপাশি তিনি পরিচালনাও করেছেন। বিজ্ঞাপনচিত্র নির্মাতা হিসেবে অল্প দিনেই সুনাম অর্জন করেন। কাজ করেছেন স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রেও। ছবি আঁকতেন, ছিলেন ফ্যাশন ডিজাইনার। তিনি ঢাকা কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করার পর জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগ থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর করেছেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×