জাহালমের ঘটনার দায় দুদক এড়াতে পারে না

সেবা প্রদানে ব্যর্থ কর্মকর্তাদের বেতন থেকে ক্ষতিপূরণ নেয়া উচিত

-দুদক চেয়ারম্যান

  যুগান্তর রিপোর্ট ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

দুদক

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেছেন, সরকারি সংস্থাগুলোয় যারা সময়মতো সেবা দিতে ব্যর্থ হচ্ছেন তাদের বেতন থেকে ক্ষতিপূরণ আদায় করা উচিত।

এ বিষয়ে সংশ্লিষ্টরা ভাবতে পারেন। বেঁধে দেয়া সময়ে তদন্ত বা অনুসন্ধান শেষ করতে না পারলে প্রয়োজনে দুদকের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের বেতন-ভাতা থেকেও ক্ষতিপূরণের অর্থ আদায় করা যায় কিনা, সেটাও ভেবে দেখা হবে।

তিনি কর্মকর্তাদের উদ্দেশে বলেন, আপনাদের কাছে যেসব নাগরিক আসেন তাদের প্রত্যেককে সম্মান ও শ্রদ্ধা করতে হবে। আপনারা যদি সময়মতো অনুসন্ধান বা তদন্তকাজ সম্পন্ন করেন, তাহলেই অভিযোগকারী এবং অভিযুক্ত সম্মানিত বোধ করবেন।

বৃহস্পতিবার দুদকের প্রধান কার্যালয়ে মহান ভাষা আন্দোলনে শহীদদের স্মরণে অনুষ্ঠিত আলোচনায় তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় তিনি রাজধানীর চকবাজারের অগ্নিকাণ্ডে নিহতদের রুহের মাগফিরাত কামনা করেন এবং আহতদের দ্রুত আরোগ্য কামনাসহ হতাহত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান। আলোচনা সভায় দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেন, দুর্ভাগ্যজনক হলেও সত্য, আমরা ইতিহাস জানি কিন্তু তা মানি না, ইতিহাস থেকে শিক্ষা নিতে হয় জানি, কিন্তু নিই না। ২১ ফেব্রুয়ারি শুধু বাংলা ভাষাকে প্রতিষ্ঠিত করার আন্দোলন ছিল কিনা এমন প্রশ্ন রেখে দুদক চেয়ারম্যান বলেন- এটি ছিল অন্যায়, শোষণ, নিপীড়ন ও চরম অব্যবস্থাপনার বিরুদ্ধে এবং ন্যায়ের পক্ষে সমন্বিত প্রতিবাদের বহির্প্রকাশ। আমরা যদি এ আন্দোলন থেকে শিক্ষা গ্রহণ করতাম, তাহলে আমাদের এ পবিত্র মাটিতে প্রতিটি সংস্থায় রন্ধ্রে রন্ধ্রে দুর্নীতি বাসা বাঁধতে পারত না। তিনি বলেন, প্রতিটি গণকর্মচারীকে নির্ধারিত সময়ে সেবা প্রদান করার কথা। কিন্তু জনগণ নির্ধারিত সময়ে তা পাচ্ছেন না। এ সময় দুদক কর্মকর্তাদের উদ্দেশে তিনি আরও বলেন, আপনারা কেন নির্ধারিত সময়ে অভিযোগের অনুসন্ধান বা তদন্ত সম্পন্ন করতে পারছেন না। সব একই সূত্রে গাঁথা। এর বিরুদ্ধে এখন পর্যন্ত তীব্র প্রতিবাদ নেই। তবে অবশ্যই প্রতিবাদ হবে। আমরা যদি ঠিকমতো কাজ না করি, তাহলে এমন প্রতিবাদ হবে যা কেউ ঠেকাতে পারবেন না। ’৫২-এর প্রতিবাদের প্রায় ১৯ বছর পর ’৭১-এর প্রতিবাদ সবকিছুকে ছাপিয়ে একটি সর্বাÍক জনযুদ্ধের মধ্য দিয়ে স্বাধীন বাংলাদেশের সৃষ্টি হয়েছে। আমরা দেশ পেয়েছি, স্বাধীনতা পেয়েছি। আমরা যদি জনগণের রোষের বহির্প্রকাশ হিসেবে আরেকটা প্রতিবাদ না চাই, তাহলে অবশ্যই আমাদেরকে আমিত্বের প্রতিযোগিতা থেকে বের হয়ে আসতে হবে। সবসময় আমি ভালো থাকব, আমার সন্তান ভালো থাকবে, আমিই শ্রেষ্ঠ- এ মানসিকতা পরিত্যাগ করতে হবে। এদিকে বিনা দোষে ৩ বছর কারাগারে থাকার পর মুক্তি পাওয়া জাহালমের প্রসঙ্গে দুদক চেয়ারম্যান বলেন, জাহালমের ঘটনা দুঃখজনক। এর দায় দুদক এড়াতে পারে না। আলোচনা সভায় দুদক কমিশনার ড. মো. মোজাম্মেল হক খান বলেন, ২১-এর চেতনাকে হৃদয়ে ধারণ করে দুর্নীতির বিরুদ্ধে সম্মিলিতভাবে সামাজিক আন্দোলন সৃষ্টির উদ্যোগ নিতে হবে। আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন- দুদক সচিব মোহাম্মদ দিলোয়ার বখ্ত, দুদক মহাপরিচালক (প্রশাসন) মোহাম্মদ মুনীর চৌধুরী, মহাপরিচালক (প্রতিরোধ) সারোয়ার মাহমুদ, পরিচালক মো. গোলাম শাহরিয়ার চৌধুরী, উপপরিচালক মো. তালেবুর রহমান প্রমুখ। উপস্থিত ছিলেন মহাপরিচালক (লিগ্যাল) মো. মইদুল ইসলাম, মহাপরিচালক (তদন্ত) মো. মোস্তাফিজুর রহমানসহ পরিচালক এবং উপপরিচালক পদমর্যাদার কর্মকর্তারা।

ঘটনাপ্রবাহ : ভুল আসামি জাহালম

আরও
--
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×