ঢামেক মর্গে লাশের সন্ধানে এখনও ভিড়

  যুগান্তর রিপোর্ট ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ঢামেক মর্গে লাশের সন্ধানে এখনও ভিড়

চকবাজারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় শনিবার আনোয়ার হোসেন মঞ্জু (৪৫) নামে আরও একজনের লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে। এ নিয়ে ৪৭টি লাশ তাদের স্বজনদের মাঝে হস্তান্তর করা হল। এদিনও ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গে লাশের সন্ধানে স্বজনদের ভিড় ছিল।

স্বামী নুরুজ্জামান হাওলাদারের লাশের জন্য ডিএনএ নমুনা দিয়েছেন শিরিন বেগম নামে এক নারী ও তার সন্তান আবুল হোসেন। তাদের বাড়ি নারায়ণগঞ্জ। এ নিয়ে ১৯টি লাশের বিপরীতে ৩২ জন ডিএনএ নমুনা দিয়েছেন।

ঢামেক হাসপাতাল ফরেনসিক বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. সোহেল মাহমুদ যুগান্তরকে জানান, অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় তারা ৬৯টি ব্যাগের মধ্যে ৬৭টি লাশ পেয়েছেন। শনিবার পর্যন্ত ৪৭টি লাশ শনাক্ত শেষে স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

তিনি বলেন, শনাক্ত না হওয়া ২০টি মৃতদেহের মধ্যে পাঁচটি নারীর। একটি মৃতদেহের জন্য এখনও কেউ ডিএনএ নমুনা দিতে আসেননি। ডিএনএ পরীক্ষা শেষে স্বজনদের কাছে লাশগুলো যত দ্রুত সম্ভব হস্তান্তর করা হবে জানিয়ে সোহেল মাহমুদ জানান, ডিএনএ টেস্ট বিষয়টি সিআইডি দেখছে। তারা চেষ্টা করছেন দ্রুত সময়ের মধ্যে লাশ শনাক্ত করতে।

সিআইডির ডিএনএ পরীক্ষক মাসুদ রাব্বী সবুজ যুগান্তরকে জানান, শনিবার পর্যন্ত ১৯ মৃতদেহের বিপরীতে ৩২ জন স্বজনের ডিএনএ নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। যাদের স্বজনরা ডিএনএ নমুনা দিয়েছেন তারা হলেন- মৃত নুরুল হক, হাজী ইসমাইল, মো. জাফর, আহসানউল্লাহ, তানজীল হাসান, বিবি হালিমা, নাসরিন জাহান, সালেহ আহমেদ লিপু, আত্রায়, ফয়সাল সারোয়ার, দুলাল কর্মকার, আনোয়ার হোসেন, রেহনুমা তাবাসুম দোলা, রাজু, ফাতেমা-তো-জোহরা, মো. শাহীন আহমেদ, মো. হেলাল, মোস্তফা ও নুরুজ্জামান হাওলাদার।

--
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×