টানা বৃষ্টিতে মুন্সীগঞ্জে আলু চাষীদের ক্ষতির আশঙ্কা

  যুগান্তর রিপোর্ট, মুন্সীগঞ্জ ০১ মার্চ ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

আলু

টানা তিন দিনের বৃষ্টিতে আলুর ব্যাপক ক্ষতির আশঙ্কা করছে মুন্সীগঞ্জ জেলার আলু চাষীরা। গত কয়েক বছরের লোকসানের পর এ বছর আলুর আবাদ মৌসুমে আবহাওয়া ভালো থাকায় বেশি ফলনের স্বপ্ন দেখতে শুরু করে কৃষকরা।

আলু উত্তোলনে সপ্তাহখানেক পূর্বেই টানা এ বৃষ্টি তাদের স্বপ্ন পূরণে দুঃস্বপ্ন দেখা দেয়, আলু চাষীদের চোখেমুখে নেমে এসেছে হতাশার ছাপ। বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলার সদর উপজেলার মিরকাদিম ও টঙ্গীবাড়ী উপজেলার কামারখাড়া, হাসাইল, আব্দুল্লাপুরসহ কয়েকটি স্থানে ঘুরে দেখা যায় টানা বৃষ্টিতে অধিকাংশ আলুর জমিতে পানি জমে আছে।

এর মধ্যে নিচু জমিগুলোর অবস্থা বেশি নাজুক। এসব জমির কিছু অংশে সৃষ্টি হয়েছে জলাবদ্ধতা। শুধু সদর ও টঙ্গীবাড়ী নয়, জেলার ৬টি উপজেলার আলু ক্ষেতের এখন একই অবস্থা। টঙ্গীবাড়ী উপজেলা কামারখাড়া এলাকার কৃষক আক্কাস বেপারি জানান, ৩ বিঘা জমিতে আলু চাষ করেছি, এখন আলু পচে গেলে আমাদের পুরো টাকাই লোকসান হবে। আবদুল্লাহপুর এলাকার কৃষক সেলিম শেখ জানান, ঋণ করে এ বছর আলু চাষ করেছি, বৃষ্টিতে আলু পচে গেলে বাড়িঘর বিক্রি করে ঋণ পরিশোধ করতে হবে।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের তথ্যমতে, এ বছর ৩৮ হাজার ৮০ হেক্টর জমিতে আলু আবাদের লক্ষ্যমাত্রা থাকলেও আবাদ হয়েছে ৩৯ হাজার ৭০০ হেক্টর জমিতে। উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ হয়েছে ১৩ লাখ মেট্রিক টন। এ ব্যাপারে মুন্সীগঞ্জ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ হুমায়ন কবীর জানায়, এ পর্যন্ত বৃষ্টিতে আলুর ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা কম, তবে বৃষ্টি আরও দীর্ঘস্থায়ী হলে ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×