গাজীপুরে ভেজাল ওষুধ জব্দ কারখানা মালিক গ্রেফতার

  গাজীপুর প্রতিনিধি ০৭ মার্চ ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

গ্রেফতার

গাজীপুরে কোটি টাকার ভেজাল ওষুধ জব্দ এবং কারখানা মালিক ও এক কর্মচারীকে গ্রেফতার করেছে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। মঙ্গলবার গাজীপুর মহানগরীর ভুরুলিয়া এলাকা থেকে ভেজাল ওষুধ ও ওষুধ তৈরির মালামাল উদ্ধার করা হয়।

মালিকের নাম রাব্বানী। তিনি রংপুর জেলার মিঠাপুকুর থানার রানীপুকুর গ্রামের আকমল হোসেনের ছেলে। কর্মচারী আবদুস সালামের বাবার নাম মজিবর রহমান। বাড়ি পশ্চিম ভুরুলিয়ার ময়লারটেক এলাকায়।

বুধবার সকালে গাজীপুর মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ কার্যালয়ে ব্রিফিংয়ে উপ-পুলিশ কমিশনার আরিফুল হক জানান, সরকারি অনুমোদন ছাড়া মানুষের ও পশুর চিকিৎসার জন্য ভেজাল ওষুধ তৈরি করছিল একটি চক্র। তারা কেমিক্যাল ও দাহ্য পদার্থের সঙ্গে কৃত্রিম রং মিশিয়ে মানুষের রক্ত শুদ্ধিকরণ বটিকা, চর্মরোগের মলম, যৌনশক্তি বৃদ্ধিকরণ বটিকা, চুলপড়া বন্ধের তেল, হাঁস-মুরগি ও কবুতরের বসন্ত, রানীক্ষেত এবং ডাক প্লেগের ওষুধ তৈরি করে তা সারাদেশে বিতরণ করে আসছিল।

এমন খবর পেয়ে মঙ্গলবার বিকালে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ড. রুহুল আমিন সরকারের নেতৃত্বে ওই কারখানায় অভিযান চালানো হয়।

একই সময় উপ-পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম) শরিফুর রহমান জানান, নকল জাতীয় পরিচয়পত্র তৈরির অভিযোগে গোয়েন্দা পুলিশ মঙ্গলবার রাত ১২টার দিকে পৃথক অভিযান চালায়। এ সময় মহানগরীর চান্দনা চৌরাস্তার বর্ষা সিনেমা হল সংলগ্ন একটি বাড়ি থেকে ওসমান গণি নামে এক যুবককে গ্রেফতার করা হয় এবং তার দখল থেকে জাতীয় পরিচয়পত্র বানানোর কাজে ব্যবহৃত কম্পিউটার, ক্যামেরা, লেমিনেটিং মেশিন জব্ধ করা হয়।

সে সিলেট জেলার দক্ষিণ সুরমা থানার বরইকান্দি গ্রামের বাবুল মিয়ার ছেলে। তিনিসহ একটি চক্র ৫শ’ টাকার বিনিময়ে ভুয়া জাতীয় পরিচয়পত্র ও জাল কাগজপত্র সৃজন করে আসছিল।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×