দুই কোরিয়ার ঐতিহাসিক করমর্দন

কিমের বোনের সঙ্গে খাননি মাইক পেন্স

প্রকাশ : ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  যুগান্তর ডেস্ক

শীতকালীন অলিম্পিক অনুষ্ঠানে উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উনের বোন ইয়ো-জং এর সঙ্গে হাত মিলিয়েছেন দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে-ইন। দুই শত্র“ রাষ্ট্রের এই হাত মেলানোকে ঐতিহাসিক করমর্দন বিবেচনা করছে দুই কোরিয়া।

কিমের বোনের নেতৃত্বে বৃহস্পতিবার দক্ষিণ কোরিয়ায় তিন দিনের সফরে গেছে উত্তর কোরিয়ার উচ্চপর্যায়ের একটি প্রতিনিধি দল। এ দলে আছেন উত্তরের আলঙ্কারিক রাষ্ট্রপ্রধান কিম ইয়ং ন্যামও। প্রেসিডেন্ট মুন উত্তরের এ দুই নেতাসহ বিশ্বের অন্যান্য নেতার সঙ্গেও শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন। এরপর দুই কোরিয়ার একতার বিরল নিদর্শনস্বরূপ এক পতাকাতলে দুই দেশের ক্রীড়াবিদদের পদযাত্রা প্রত্যক্ষ করেন তারা। এদিকে পাশাপাশি বসেও কেউ কারও সঙ্গে কথা বলেননি যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স ও কিম জং উনের বোন ইয়ং জো। এমনকি উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে নৈশভোজেও অংশ নেননি মাইক পেন্স। উত্তর কোরিয়ার আলঙ্কারিক রাষ্ট্রপ্রধান কিম ইয়ং ন্যাম ও কিম জং উনেন বোন কিম ইয়ো জংয়ের সঙ্গে শুক্রবার ওই নৈশভোজে অংশ নিতে আমন্ত্রণ পেলেও তা এড়িয়ে গেছেন পেন্স। শুক্রবার দক্ষিণ কোরিয়ার পিয়ংচ্যাংয়ে শুরু হয়েছে শীতকালীন অলিম্পিকের এবারের আসর। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পাশাপাশি বসলেও ইয়ং ন্যাম ও ইয়ো জংয়ের সঙ্গে কথা বলেননি পেন্স। ইয়ং ন্যামের সামনে পড়ে গেলে স্পষ্টত তাকে এড়িয়ে যান তিনি। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পেন্সের পেছনের সারিতে বসতে দেয়া হয় ইয়ং ন্যাম ও ইয়ো জংকে। খবর বিবিসির। উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতাসীন ওয়ার্কার্স পার্টির সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী পর্ষদ পলিটব্যুরোর সদস্য কিম ইয়ো-জং দেশটির নেতা কিম জং-উনের পরিবারের প্রথম কোনো সদস্য হিসেবে দক্ষিণ কোরিয়ায় গেছেন। পিয়ংচ্যাংয়ে ৯ ফেব্র“য়ারি থেকে শুরু করে ২৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চলমান অলিম্পিকের আসরে তার উপস্থিতিকে অর্থবহ এবং গুরুত্বপূর্ণ হিসাবেই দেখছেন বিশ্লেষকরা।