বিজিবির সংবাদ সম্মেলন

ইয়াবা ব্যবসায় মিয়ানমারের লোকজন জড়িত

  যুগান্তর রিপোর্ট ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ইয়াবা ব্যবসার সঙ্গে মিয়ানমারের সব সংস্থার লোকজন জড়িত বলে মন্তব্য করেছেন বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) মহাপরিচালক (ডিজি) আবুল হোসেন। তিনি বলেন, ইয়াবা উৎপাদন হয় মিয়ানমারে। সেখানে যে সংস্থাই থাকুক না কেন ইয়াবা ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। আমরা সুনির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে ইয়াবা নির্মূলে কাজ করছি। রোববার পিলখানা সদর দফতরে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

মাদক চোরাচালানে বিজিবির সদস্যরা সহায়তা করেন, এমন তথ্য জানালে বিজিবি ডিজি সাংবাদিকদের বলেন, হাতের পাঁচ আঙুল সমান নয়। যাদের বিরুদ্ধে এ ধরনের অভিযোগ উঠছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। আমরা বিভিন্ন স্থানে ক্যামেরা বসিয়ে মনিটরিং করছি। বাহিনীর সদস্যরা যেন চোরাচালানে সম্পৃক্ত না হতে পারে সেজন্য নির্দিষ্ট সময় পর একটি ব্যাটালিয়ন অন্য এলাকায় শিফট করি। সম্প্রতি দুটি ব্যাটালিয়নকে শিফট করা হয়েছে।

বিডিআর বিদ্রোহের ঘটনার রায়ের পর্যবেক্ষণে উচ্চ আদালত বলেছেন, বিজিবি জওয়ানদের সঙ্গে অফিসারদের ভালো ব্যবহার করতে হবে। এ বিষয়ে কী পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে জানতে চাইলে বিজিবির ডিজি আবুল হোসেন বলেন, প্রতি মাসেই সিওরা দরবার করেন। সেখানে বিজিবি সদস্যরা তাদের সমস্যার কথা তুলে ধরেন। বিজিবির সদর দফতর থেকেও বিষয়গুলো পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে।

আদালত পর্যবেক্ষণে বলেছেন, বিজিবিকে বাণিজ্যিক কার্যক্রম থেকে দূরে থাকতে হবে এ বিষয়ে ডিজির দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে তিনি বলেন, বিজিবির সব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান অবসরপ্রাপ্ত সদস্য এবং সিভিলিয়ানরা পরিচালনা করেন। বিজিবিতে কর্মরত কোনো সদস্য এসব কার্যক্রমে নেই।

সংবাদ সম্মেলনে বিজিবির ডিজি গত এক বছরের সফলতার বিষয়গুলো তুলে ধরেন। তিনি বলেন, এই সময়ে একটি অ্যাডহক রিজিয়ন, চারটি নতুন সেক্টর, ১৫টি নতুন ব্যাটালিয়ন ও ১৩৬টি বিওপি স্থাপন করা হয়েছে। ৫৩৯ কিলোমিটার অরক্ষিত সীমান্তে ৬২টি বিওপি নির্মাণের ফলে ৪০২ কিলোমিটার সীমান্ত সুরক্ষিত হয়েছে। আরও ২০টি বিওপির মাধ্যমে অবশিষ্ট ১৩৭ কিলোমিটার সীমান্ত সুরক্ষিত করা হবে। মিয়ানমারে ২৭১ কিলোমিটার সীমান্ত সড়ক ও রাস্তা নির্মাণ প্রকল্প প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। এই সময়ে স্মার্ট বর্ডার ম্যানেজমেন্ট প্রবর্তন করা হয়েছে।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter